মননশীল জাতি গঠনে লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নাই : সাবেক উপদেষ্টা তপন চৌধুরী


111 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মননশীল জাতি গঠনে লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নাই : সাবেক উপদেষ্টা তপন চৌধুরী
নভেম্বর ৭, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

তত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও স্কয়ার গ্রুপের এমডি তপন চৌধুরী বলেছেন, মননশীল জাতি গঠনে লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নাই। তিনি বলেন, তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার সহজলভ্য হওয়ায় বর্তমান সময়ের তরুণ সমাজ লাইব্রেরী মুখো না হয়ে ফেসবুক সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আকৃষ্ট হয়ে পড়ছে। ফলে সামাজিক অবক্ষয় সহ সমাজে বিশৃংখলা সৃষ্টি হচ্ছে। তিনি অনির্বাণ লাইব্রেরীর বহুমুখী কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রসংশা করে বলেন, সামাজিক অবক্ষয় রোধ সহ সমাজ থেকে মাদক, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, তথ্য প্রযুক্তির নানামূখী ব্যবহার এবং কুসংস্কার দূর করতে হলে দেশের প্রতিটি এলাকায় অনির্বাণ লাইব্রেরীর ন্যায় বহুমুখী কর্মকান্ডের লাইব্রেরী প্রতিষ্ঠা করতে হবে এবং যে সব লাইব্রেরী রয়েছে সেগুলোর কার্যক্রমকে গতিশীল এবং বহুমূখী ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। এ জন্য দেশের প্রতিটি এলাকায় লাইব্রেরী প্রতিষ্ঠার মত সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে এবং এ আন্দোলনে শিক্ষক ও তরুণ সমাজসহ সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সাবেক উপদেষ্টা আরো বলেন, সমাজ পরিবর্তনসহ শিক্ষিত জাতি গঠনে শিক্ষকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকে। তিনি নিজের স্কুল জীবনের স্মৃতিচারণ করে বলেন, আমি ক্লাসে ভাল রেজাল্ট করতাম, একদিন আমার অংক ভাল না হওয়ায় স্যারের কাছে গিয়ে প্রাইভেট পড়তে চাওয়ায় স্যার আমাকে থাপ্পর দিয়ে বিকালে বাসায় দেখা করতে বলে। বাসায় গেলে স্যার আমাকে বলে তোমার শেখার প্রয়োজন আছে, আমি তোমাকে শেখাবো। কিন্তু সেটা প্রাইভেট কিংবা টাকার বিনিময়ে নয়। এরপর থেকে স্যার আমাকে অনেক আদর এবং ¯েœহ দিয়ে দীর্ঘদিন পড়িয়েছেন। মোহনলাল সহ এ ধরণের শিক্ষকদের ঋণ কোন দিন শোধ হওয়ার নয়। তিনি লাইব্রেরীর প্রতিষ্ঠাতা ও পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব ভদ্রের প্রশংসা করে বলেন, তিনি শুধু পাইকগাছার নয় বাংলাদেশ পুলিশের গর্ব। প্রশাসনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তারমত সৎ অফিসারের খুবই প্রয়োজন। তিনি একসাথে হাতে হাত মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বৃহস্পতিবার বিকালে খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার মাহমুদকাটী হরি সভা মন্দির চত্বরে অনির্বাণ লাইব্রেরী আয়োজিত শিক্ষক সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে হরিঢালী ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক মোহনলাল দত্ত’কে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। অনির্বাণ লাইব্রেরীর সভাপতি সমীরণ দে’র সভাপতিত্বে ও সিনিয়র সাংবাদিক নিখিল ভদ্রের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, লাইব্রেরীর প্রতিষ্ঠাতা ও সিলেট রেঞ্জ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব ভদ্র। উপস্থিত ছিলেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রশিদুজ্জামান, ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়াদ্দার, অধ্যক্ষ হাবিবুল্লাহ বাহার, হরেকৃষ্ণ দাশ, অধ্যাপক কালিদাশ চন্দ্র, প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক গনেশ ভট্টাচার্য ও লাইব্রেরীর সম্পাদক প্রভাত কুমার দেবনাথ। এরআগে দুপুর আড়াইটার দিকে এমডি তপন চৌধুরী হেলিকপ্টার যোগে মাহমুদকাটী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নামেন। এ সময় অনির্বাণ লাইব্রেরী সহ স্কয়ার গ্রুপের রিজিওনাল কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে তাকে অভ্যর্থনা জানানো হয়। পরে তিনি লাইব্রেরীর পাঠ কক্ষ উদ্বোধন এবং লাইব্রেরীর বিভিন্ন বিভাগের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

#