মমতাকে পাশে নিয়েই তিস্তা চুক্তি হবে: মোদি


454 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মমতাকে পাশে নিয়েই তিস্তা চুক্তি হবে: মোদি
এপ্রিল ৮, ২০১৭ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

অনলাইন ডেস্ক ::

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে পাশে নিয়েই বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

শনিবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একান্ত বৈঠক শেষে যৌথ ঘোষণায় একথা জানান মোদি। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ও এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ছিলেন।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, খুব শিগগিরই বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন চুক্তি সম্পন্ন হবে।

যৌথ ঘোষণার আগে সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে নয়াদিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে একান্ত বৈঠক করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৈঠকে শেখ হাসিনা তিস্তা চুক্তিসহ গঙ্গা ব্যারেজ প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং নদী উপত্যকার পরিবেশ রক্ষা যৌথভাবে করার দাবি তোলেন। দুই প্রধানমন্ত্রীর ওই বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়।

এ প্রসঙ্গে যৌথ ঘোষণায় দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ [শনিবার] এসব চুক্তি ও সমঝোতার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছল।

শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে শীর্ষ বৈঠকে বসার আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এর আগে সকালে তিনি নয়াদিল্লিতে ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে পৌঁছলে সেখানে তাকে অভ্যর্থনা জানান নরেন্দ্র মোদি। এ সময় শেখ হাসিনাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়।

চার দিনের ঐতিহাসিক সফরে শুক্রবার দিল্লি যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার দুপুরে পালামের ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দরে পৌঁছার পর তাকে লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সফরের প্রথম দিনে বিকেলে শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। দিল্লির বাংলাদেশ হাইকমিশনে সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানানো হয়। রাতে তিনি বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলীর বাসভবনে নৈশভোজে অংশ নেন।

শনিবার রাতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি বৈঠকের কথা রয়েছে।