মহসিন আলীর শূণ্য আসনে প্রার্থী হবেন তার স্ত্রী


423 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মহসিন আলীর শূণ্য আসনে প্রার্থী হবেন তার স্ত্রী
সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
সদ্য প্রয়াত সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসীন আলীর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া মৌলভীবাজার-৩ (সদর-রাজনগর) আসনে প্রার্থী হবেন তাঁর স্ত্রী সায়রা মহসীন। এ কথা জানিয়েছেন প্রয়াত মন্ত্রীর মেয়ে সৈয়দা সানজিদা শরমিন।

সানজিদা শরমিন বলেন, আব্বার অনেক স্বপ্ন অপূর্ণ রয়ে গেছে। মৌলভীবাজারকে নিয়ে তাঁর অনেক স্বপ্ন ছিলো। এই স্বপ্নগুলো পূরণের জন্য আমরা চাচ্ছি এই আসনে আম্মা যেনো প্রার্থী হন। আমরা তাঁকে এ কথা জানিয়েছিও। দলীয় নেতাকর্মীরাও চাচ্ছেন আম্মা প্রার্থী হোক। কিন্তু আব্বার মৃত্যুতে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত থাকায় আম্মা এখনো এ ব্যাপারে কিছু বলেননি। আশা করছি, দু’একদিন পর তিনি সম্মতি জানাবেন।

ইতোমধ্যে সায়রা মহসীনের পক্ষে প্রচারণা শুরু করেছেন তাঁর সমর্থকরা। ফেসবুকে ‘সায়রা মহসীনকে এমপি হিসেবে দেখতে চাই’ নামে খোলা হয়েছে পেজ।

ফেসবুকে পেজ খোলা সম্পর্কে সানজিদা শরমিন বলেন, এটি দলীয় নেতাকর্মী ও আব্বার অনুসারীরাই খুলেছেন।

মহসীন কন্যা বলেন, আব্বা বেঁচে থাকতে আমাদের বাসার দরজা যেমন সকলের জন্য খোলা ছিলো, এখনও সব মানুষের জন্য উন্মুক্ত রয়েছে।

সদ্য প্রয়াত সৈয়দ মহসিন আলী পর পর দু’বার মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। প্রথমবার তিনি সাবেক অর্থমন্ত্রী এম. সাইফুর রহমানের মতো বর্ষিয়ান প্রার্থীকে পরাজিত করে সাংসদ নির্বাচিত হন। এর আগে মৌলভীবাজার পৌরসভার তিন তিন বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন মহসীন আলী।

জানা যায়, মহসীন আলীর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া মৌলভীবাজার-৩ আসনে মহসীন পত্নী সায়রা মহসীন ছাড়াও বর্ষিয়ান আওয়ামী লীগ নেতা ও মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের প্রশাসক আজিজুর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত পুরকায়স্থ এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও মৌলভীবাজার চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি কামাল হোসেন প্রার্থী হওয়ার লড়াইয়ে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৪ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মহসিন আলী।

নিউমোনিয়া, কিডনিতে সমস্যা এবং ডায়াবেটিস রোগে মারাত্নক অসুস্থ সমাজকল্যাণ মন্ত্রীকে গত ৫ আগস্ট উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। ৪ আগস্ট রাতে হবিগঞ্জের মাধবকুন্ডে এক আলোচনা সভাতেই অসুস্থবোধ করেন মহসিন আলী। এরপরই মন্ত্রীকে ঢাকার বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

১৬ সেপ্টেম্বর তার নিজের এলাকা মৌলভীবাজারে মন্ত্রীর বাবা-মায়ের পাশে তাঁকে সমাহিত করা হয়