মাইকেল মধুসুদন দত্তের কপোতাক্ষ নদের উপর ঝুকিপূর্ন বাঁশের সাঁকো: জনদূর্ভোগ চরমে


429 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মাইকেল মধুসুদন দত্তের কপোতাক্ষ নদের উপর ঝুকিপূর্ন বাঁশের সাঁকো: জনদূর্ভোগ চরমে
জানুয়ারি ২৫, ২০১৭ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

মোঃ মুজিবুর রহমান,পাটকেলঘাটা ::
মহাকবি মাইকেল মধুসুদন দত্তের জন্মভমি সাগরদাঁড়ীতে কপোতাক্ষ নদের উপর ঝুকিপূর্ন বাঁশের সাঁকো দু-পাড়ের সাধারন মানুষের মরনফাঁদে পরিণত হয়েছে। তারপর বেঁচে থাকার জন্য এলাকার লোকজনদের ঝুকি নিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করতে হয় বাঁশের সাঁকোর উপর দিয়ে। এই সাঁকোর উপর দিযে পার্শ্ববর্তী উপজেলা তালা, কলারোয়ার ছাত্র ছ্ত্রাীসহ হাজার হাজার নারী পুরুষ যাতায়াত করে থাকেন। স্থানীয়দের অভিযোগ ভোটের সময় কপোতাক্ষ নদের উপর দিয়ে সেতু করার স্বপ্ন দেখিয়ে নির্বাচনী বৈতরনী পার হন। স্বাধীনতার ৪৬বছরে মধুকবির স্বপ্নের কপোতাক্ষ নদের উপর সেতু নির্মানের কোন এমপি উদ্যোগ না নেওয়ায় এলাকাবাসীর ক্ষোভ কমছেনা। গুরুত্বপূর্ণ এই সেতুটি নির্মিত হলে কেশবপুর, তালা, কলারোয়া, সাতক্ষীরার লোকজনের জীবনযাত্রা পাল্টে যাবে। মহাকবি মাইকেল মধুসুদন দত্তের জন্মভুমিতে অবস্থিত পর্যটন কেন্দ্র, মধুপলি¬, ডাক বাংলো, কলেজ, প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র, সোনালী ব্যাংক, গ্রামীন ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংকসহ অসংখ্য বেসরকারী প্রতিষ্টান। মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রও রয়েছে। মধুকবির জন্মবার্ষিকীতে প্রতি বছর সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা সরকারীভাবে উদ্যাপন হয়। ঐ সময় বাঁশের সাঁকো দিয়ে হাজার হাজার লোকজন পার হয় জাতীয় মেলা উপভোগ করার জন্য। মেলা উপভোগ করতে এসে র্দর্ভোগে পড়েন সাধারণ মানুষ। সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায় সাঁগরদাড়ী কপোতাক্ষ নদের উপর সেতু নির্মাণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মহাকবি মাইকেল মধুসুদন দত্তের জন্মভমিতে অবস্থিত সকল প্রতিষ্ঠানসহ বাজারটিও উন্নত হত এবং প্রতিবছর মধুমেলায় জনগনদের দুর্ভোগ পোহাতে হতো না। স্থানীয় ইউপি মেম্বর অপূর্ব জানান কপোতাক্ষের উপর সেতুটি র্নিমান হলে কেশবপুর, তালা, কলারোয়ার বিভিন্ন পেশার মানুষের দুর্ভোগ পোহাতে হতো না। মধুকবির স্বপ্নের কপোতাক্ষ নদের উপর একটি সেতু তিনটি উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের মানুষের প্রানের দাবি।