মানুষের জীবনমান উন্নয়নে একযোগে কাজ করতে হবে : জেলা প্রশাসক


325 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মানুষের জীবনমান উন্নয়নে একযোগে কাজ করতে হবে : জেলা প্রশাসক
নভেম্বর ৩০, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক :
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান বলেছেন, দেশে উন্নয়ন দুই ভাবে হয়। প্রথমত দেশীয় উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে। অন্যটি হলো বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের মাধ্যমে। তিনি বলেন, বর্তমানে অনেক মানুষ জীবন মান উন্নয়ন করতে পারে না। তাদের জীবনমান উন্নয়নে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।

সোমবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সুশীলনের আয়োজনে ইইপি/সিঁড়ি/ ম্যানার প্রকল্প সমাপ্তি অবহিতকরণ এবং সমন্বয় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সুশীলনের প্রকল্প সমন্বয়কারী এম মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ এফ এম এহতেশামূল হক।

বক্তব্য রাখেন প্রকল্পের সিনিয়র মনিটরিং কর্মকর্তা মেজবাউল হক, সাংবাদিক আনিছুর রহিম, প্রকল্পের শ্যামনগরের উপকারভোগী মমতাজ বেগম, কলারোয়ায় উপকার ভোগী আয়েশা পারভীন প্রমুখ। সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথি আরো বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় মানুষের জন্য কাজ করতে হবে।

এ সময় মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। তিনি বলেন, যাদের পেশা কৃষি তাদের খাস জমি বন্দোবস্তো দেওয়া যায়। কোন নদী বা খালের শ্রেণি পরিবর্তন না করা পর্যন্ত বন্দোবস্তো প্রদান করা যায় না। আইন পারমিট করে না। যদি কেউ দেয় তা আইন লঙ্ঘন করে দেয়। তিনি আরো বলেন, প্রকল্পের মাধ্যমে যাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে তারা তার সুফল পাবে। যাদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে তাদের উৎপাদনের কাজে ব্যবহার করতে হবে। তবে প্রকল্পের সাফল্য আসবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হাতে ইইপি/সিঁড়ি/ ম্যানার প্রকল্পের পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তুলে দেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, সুশীলন দেশের ৩১টি জেলায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সেখানে ৭০ লাখ মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সুবিধা পাচ্ছে। বর্তমানে সংস্থার ৩১টি প্রকল্প চলমান আছে।