মালয়েশিয়ায় জাল পাসপোর্ট তৈরির ঘটনায় ২ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার


148 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মালয়েশিয়ায় জাল পাসপোর্ট তৈরির ঘটনায় ২ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার
আগস্ট ১৪, ২০২০ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

শেখ সেকেন্দার আলী, মালয়েশিয়া।

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের কর্মক্ষেত্র কমে যাওয়ার সুযোগ নিয়ে জাল পাসপোর্ট, ভিসা তৈরি করে সাপ্লাই করার অভিযোগে দুই বাংলাদেশিসহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে ইমিগ্রেশন বিভাগ।

শুক্রবার (১৪ আগষ্ট) দেশটির অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল দাজাইমী দাউদ সাংবাদিকদের বলেন, প্রকৃতপক্ষে এই সিন্ডিকেটের বেশিরভাগ গ্রাহকরা মালয়েশিয়ায় চাকরি পাওয়া আরও সহজ করার জন্য জাল ডকুমেন্টটি কেনেন, কারণ নিয়োগকারীরা পাসপোর্ট নেই এমন বিদেশী কর্মী নিয়োগের ভয়ে ভীত হন। যার কারণে অবৈধ অভিবাসীরা জাল পাসপোর্ট, কাগজপত্র কিনে বিভিন্ন কল-কারখানা কর্মরত আছে।

তিনি আরো বলেন, প্রায় দুই মাস ধরে ইমিগ্রেশন বিভাগের গোয়েন্দা নজরদারিতে এই সিন্ডিকেটের তিন সদস্যকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। গত ০৯ ও ১০ অগাষ্ট রাজধানী কুয়ালালামপুরের ক্লাং ভেলী, সেলাঙ্গর চেরাসের আবাসিক ভবন ও জালান ক্লাং লামায় অভিযান পরিচালনা করে ২ বাংলাদেশি ও একজন মঙ্গোলিয়ান নারীকে গ্রেফতার করে ইমিগ্রেশন বিভাগ।আটককৃতদের মধ্যে একজন বাংলাদেশি মালয়েশিয়ায় ১০ বছর ধরে অবস্থান করছেন। সে জালিয়াতি করে এসব কাগজপত্র তৈরি করে প্রতি মাসে মালয়েশিয়ান প্রায় ১০ হাজার রিংগিত (বাংলাদেশি টাকায় দুই লক্ষ টাকা) আয় করে বলে জানানো হয়। এর আগে সে ১০০ জাল পাসপোর্ট তৈরি করেছে।

এ সময় জালিয়াতির কাজে ব্যবহৃত ল্যাপটপ, প্রিন্টার, বিপুল পরিমাণ জাল পাসপোর্ট, ভুয়া ওয়ার্ক পারমিট এবং নিশান প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়েছে। পাসপোর্ট ও পিএলকেএস পাস (কাজের ভিসা) জালিয়াতির জন্য অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ইমিগ্রেশন আইন ১৯৫৯/৬৩ এর ৫৫ (ঘ) ধারায় অপরাধ করার জন্য তাদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়েছে। আদালতে দোষী প্রমাণিত হলে তাদের মালয় রিংগিত ৩০ হাজার (বাংলাদেশি টাকায় ৬ লক্ষ) জরিমানা ওথবা ৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ডে দণ্ডিত ছাড়াও ৬ টি বেত্রাঘাত করা হতে পারে। তদন্তের স্বার্থে গ্রেফতার ২ বাংলাদেশির নাম প্রকাশ করেনি অভিবাসন বিভাগ।