মালয়েশিয়ায় থমকে যাচ্ছে জিবন যাত্রা


151 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মালয়েশিয়ায় থমকে যাচ্ছে জিবন যাত্রা
মার্চ ১৯, ২০২০ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

শেখ সেকেন্দার আলী, মালয়েশিয়া ::

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় আতংক করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে গিয়ে থমকে যাচ্ছে জিবন যাত্রা। মালয়েশিয়ার শহর থেকে গ্রাম অঞ্চল পর্যন্ত কোথাও নেই কোলাহল। করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে গিয়ে এশিয়ার ব্যস্ততম মালয়েশিয়া যেন ঘুমিয়ে পড়েছে। সেদেশের সরকার কর্তৃক ঘোষণাকৃত ১৮ মার্চ থেকে ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন বিধিনিষেধ ও স্বাস্থ্যসচেতনতায় সেদেশের নাগরিক সহ বিদেশীরা সবাই এক কাতারে চলে এসেছে। চির চেনা মালয়েশিয়ার মানুষের মাঝে এক ধরনের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে দিন দিন। এদিকে মালয়েশিয়ার ডিফেন্স মিনিস্টার বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ঘোষণা করা বিভিন্ন বিধিনিষেধ মাত্র ৬০% মানুষের সাড়া পাওয়া গেছে। আর এটা যদি ৭০ থেকে ৮০% বৃদ্ধি না পায় তাহলে তাহলে আমরা সেনাবাহিনী নামাতে পারি।
কারন আমরা চেষ্টা করছি যেন ভাইরাসটি ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে না পড়ে।
জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সর্বশেষ বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মানুষের চলাচলের ওপর যে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে তা যথাযথভাবে কার্যকরের জন্য শুধু মৌলিক চাহিদা পূরণ ছাড়া সবাইকে ঘরের মধ্যে থাকার উপদেশ দেওয়া হচ্ছে। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার মালয়েশিয়ায় করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম দুজনের মৃত্যু হয়।

মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির বিবৃতিতে জানানো হয়, মালয়েশিয়ার সারাওয়াক জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ৬০ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। করোনায় মৃত অপরজন পেতালিং তাবলীগ জামাতে অংশ নেয়া ৩৪ বছর বয়সী এক ব্যক্তি।
মালয়েশিয়ায় হঠাৎ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার কারণেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। দেশটিতে এই পর্যন্ত ৯ শত নাগরিক প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তের মধ্যে দুজনের মৃত্যু ছাড়াও সুস্থ হয়েছেন ৪৯ জন। বাকিরা এখনো চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে একটি নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ের কাজ চলতি থাকায় ১০ লাখ টাকা জরিমানা করে।