মালয়েশিয়ায় বিষাক্ত বর্জ্য, বন্ধ ঘোষণা করা হলো ১১১ টি স্কুল


134 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মালয়েশিয়ায় বিষাক্ত বর্জ্য, বন্ধ ঘোষণা করা হলো ১১১ টি স্কুল
মার্চ ১৪, ২০১৯ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

শেখ সেকেন্দার আলী, মালয়েশিয়া থেকে :

মালয়েশিয়ার জহুর প্রদেশের পাচির গোডাং এলাকার একটি নদীতে বিষাক্ত পদার্থ (টকসি) কারণে
বহু শিক্ষার্থীসহ কয়েকশ লোক অসুস্থ হয়ে পড়লে আজ অএ এলাকায় জরুরী অবস্থা জারি করেছে স্থানীয় সরকার। এতে শতাধিক স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে আগামী ৬ই এপ্রিল পর্যন্ত।
ছাত্র ছাত্রী সহ অসুস্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য জহুর প্রদেশের রাজা অর্থ সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে। স্থানীয় পত্রিকার সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
ইতিমধ্যে উদ্ধারকারী দল একটি ছোট কাল থেকে ২,৪৩ টোন বিষাক্ত পদার্থ উদ্ধার করেছে এবং উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

গত সপ্তাহে দক্ষিণাঞ্চলীয় জোহর রাজ্যে একটি ট্রাক থেকে এসব বর্জ্য ফেলে যাওয়া হয়েছে। এতে বিস্তৃত এলাকায় বিষাক্ত ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়েছে। আক্রান্ত লোকজনের শরীরে বিবমিষাসহ বিভিন্ন আলামত দেখা যায়।

দেশটির সরকারি বার্তা সংস্থা বারনামা জানায়, শ্বাসের সঙ্গে বিষাক্ত গ্যাস শরীরে ঢুকে পড়ায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীকে চিকিৎসা দিতে হয়েছে। ইতিমধ্যে ১৬০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে সেখানকার ৪৩টি স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছে মালয়েশিয়ার শিক্ষামন্ত্রী মাসজলি মারিক। পরবর্তীতে সবমিলিয়ে শতাধিক স্কুলে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, পাসির গুডাং এলাকায় তাৎক্ষণিকভাবে ১১১টি স্কুল বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সবাইকে সতর্ক হতেও বলা হয়।

বিষাক্ত বর্জ্য নদীতে ফেলে যাওয়ার সন্দেহে তিনজনকে চলতি সপ্তাহের শুরুতে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। পরিবেশ সুরক্ষা আইনে তারা দোষী সাব্যস্ত হলে তাদের সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।