মালয়েশিয়ায় ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক রোহিঙ্গা নারী গ্রেফতার


185 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মালয়েশিয়ায় ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক রোহিঙ্গা নারী গ্রেফতার
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

শেখ সেকেন্দার আলী, মালয়েশিয়া ::

মালয়েশিয়ায় ডাকাতি ছিনতাইয়ের ঘটনায় মাস্টারমাইন্ড এক রোহিঙ্গা নারীকে গ্রেফতার করছে দেশটির পুলিশ।মালয়েশিয়া কুয়ালালামপুরে কিছুদিন আগে একটি বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় সন্দেহভাজন মুল হোতা ৩০ বয়সী রোহিঙ্গা যুবতীকে গ্রেফতার করে ৪ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে দেশটির পুলিশ। এসময় পুলিশ একটি কালো রংয়ের প্রোটন গাড়ী, মোবাইল, সিম, পেশন লেটার ও দেশি বিদেশি মুদ্রা উদ্ধার করেছে।
এর আগে কুয়ালালামপুর এবং আশেপাশের বেশ কয়েকটি জেলায় ডাকাতি ও বাড়ি ভেঙ্গে চুরির অভিযোগে পৃথক সময়ে পৃথক অভিযানে জাহান গ্যাং নামে সন্দেহভাজন তিন মহিলা সহ ছয় রোহিঙ্গা ( মিয়ানমার) নাগরিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) মালয়েশিয়ার জাতীয় সংবাদ মাধ্যম হারিয়ান মেট্রো ও বেরিতা হারিয়ান এই তথ্য নিশ্চিত করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বিস্তারিত বলা হয়েছে, রাস্তার পাশে ডাকাতি ও বিভিন্ন বাড়ীতে চুরির মাস্টার মাইন্ড বা মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে এই নারী কে গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকাল আড়াইটার দিকে, উত্তর ক্ল্যাং আইপিডি-র একদল অফিসার ও সদস্যদের ডি৪ দলটি সেলেঙ্গর কন্টিনজেন্ট পুলিশ সদর দফতর থেকে হোমস্টে জলান শ্রী বায়ু পান্তাই মরিবকে সহায়তায় ত্রিশ বছর বয়সী এই যুবতী কে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে পুলিশ তার নাম প্রকাশ করেনি।

উত্তর ক্লাং জেলা পুলিশ প্রধান, সহকারী কমিশনার নুরুলহুদা মোহাম্মদ সাল্লেহ বলেন, এর আগে যে রোহিঙ্গা ৬ সদস্য এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছিল তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই মুল হোতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, “দণ্ডবিধির ৩৯৫/ ৩৯৭ ধারায় এই ডাকাতি ও চুরির মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে এবং তাদের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। লুন্ঠিত মালামালের মধ্যে কিছু স্বর্নলংকার পুলিশ উদ্ধার করেছে যে গুলো ঐ চক্রটি দোকানে বিক্রি করেছিল।