মিয়ানমারে আন্দোলনকারীদের গ্রেপ্তারে বাড়ছে বিক্ষোভ


213 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মিয়ানমারে আন্দোলনকারীদের গ্রেপ্তারে বাড়ছে বিক্ষোভ
ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থান বিরোধীরা শনিবার অষ্টম দিনের মতো ব্যাপক বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন। দেশটির নির্বাচিত নেতা অং সান সু চিসহ গণতান্ত্রিক নেতাদের আটকের ঘটনায় জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলন দমাতে অব্যাহত গ্রেপ্তার বিক্ষোভ আরও বাড়িয়ে তুলেছে।

শনিবার ইয়াঙ্গুনের ব্যবসায়িক কেন্দ্রস্থলে হাজার হাজার লোক সমবেত হয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশটির এ পর্যন্ত সবচেয়ে বড় প্রতিবাদের একদিন পর রাজধানী নেপিডো, দ্বিতীয় শহর মান্ডলে এবং অন্য শহরগুলোতে প্রতিবাদকারীরা রাস্তায় নেমে এসেছে। খবর রয়টার্সের।

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে গ্রেপ্তার অভিযানের প্রতিক্রিয়া হিসেবে ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভকারীদের প্রতিবাদের অন্যতম শ্লোগান হয়েছে ‘রাতে অপহরণ বন্ধ করো’।

জাতিসংঘের মানবাধিকার অফিস শুক্রবার বলেছে, ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ অভ্যুত্থানের পর থেকে মিয়ানমারে রাজনৈতিক নেতা, সরকারি কর্মকর্তা, কর্মী ও সন্ন্যাসীসহ ৩৫০ জনের বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের মধ্যে অনেকে ‘সন্দেহজনক কারণে’ ফৌজদারি অভিযোগের মুখোমুখি হয়েছেন।

কর্মবিরতির আন্দোলনে অংশ নেওয়া একজন চিকিৎসকসহ জান্তা সরকারের সমালোচকদের গ্রেপ্তারের ভিডিও আন্দোলনের আগুনে ঘি ঢেলে দিয়েছে। অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে রাতের আঁধারে।

‘আমাদের রাতগুলো আর নিরাপদ নয়’ এবং ‘মিয়ানমার সেনাবাহিনী রাতে মানুষকে অপহরণ করে’সহ নানা ক্যপশন প্রচার চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও। তবে গ্রেপ্তারের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি দেশটির সামরিক সরকার। এ গ্রেপ্তারে রাজনৈতিক বন্দিদের নিয়ে কাজ করা দু’টি সংগঠন উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

দ্য অ্যাসিসট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস এবং আ ওয়াচডগ গ্রুপ ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস তাদের বিবৃতিতে বলেছে, রাতের অভিযানগুলো ভিন্নমত পোষণকারী কণ্ঠ রোধের জন্য এবং এগুলো কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। এটি সারাদেশে ঘটছে।