মিষ্টি নিয়ে ‘কাকা’ তৈমূরের বাসায় হাজির আইভী


183 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মিষ্টি নিয়ে ‘কাকা’ তৈমূরের বাসায় হাজির আইভী
জানুয়ারি ১৭, ২০২২ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে হ্যাটট্রিক জয়ের পর ভোটে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ‘কাকা’ তৈমূর আলম খন্দকারের বাসায় মিষ্টি নিয়ে গেছেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। সোমবার বিকেল ৫টায় শহরের মাসদাইর এলাকায় তৈমূরের বাসায় যান আইভী।

সোমবার সকালে আইভী গণমাধ্যমকে জানান, তিনি সকালেই তৈমূর আলম খন্দকারের বাসায় যেতে চেয়েছিলেন। তবে সকালে তিনি বাসায় ছিলেন না বলে সে সময় যেতে পারেননি।

নির্বাচনের আগে আইভী বলেছিলেন, ভোটে জিতলে তিনি মিষ্টি নিয়ে তৈমূর আলম খন্দকারের বাসায় যাবেন। এর আগে ২০১৬ সালে নাসিক নির্বাচনে জেতার পরও মিষ্টি নিয়ে ধানের শীষের প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের বাড়িতে গিয়েছিলেন আইভী।

রোববার নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে ৬৬ হাজার ৮৩৫ ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারকে হারিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোশেনের ১৯২টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফলে আইভী পেয়েছেন ১ লাখ ৫৯ হাজার ৩৯৭ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার পেয়েছেন ৯২ হাজার ৫৬২ ভোট। তাতে দেখা যায়, ৬৬ হাজার ৮৩৫ এগিয়ে রয়েছেন আইভী।

এদিকে রোববার রাতে নির্বাচনে ফল ঘোষণার পর এক প্রতিক্রিয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, তিনি প্রশাসনিক ও ইভিএম ‘কারচুপির’ কারণে হেরে গেছেন। সেলিনা হায়াৎ আইভীকে লক্ষাধিক ভোটে হারানোর আশা করা বিএনপি নেতা তৈমূর আলম খন্দকার শহরের মাসদাইরে নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনে এই ক্ষোভের কথা জানান। 

তাৎক্ষণিক ওই প্রতিক্রিয়ায় তিনি আরও বলেছিলেন, ‘এই ভোটে অংশ নিয়ে সরকারের সঙ্গে আমাক খেলতে হয়েছে। প্রশাসনিক ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ইভিএমের কারচুপির জন্য আজকে আমাদের এ পরাজয় বরণ করতে হয়েছে। এ পরাজয়কে পরাজয় মনে করি না। আমি ধন্যবাদ জানাই জনগণকে, মিডিয়াকে।’

তৈমুর বলেন, ‘জনগণের উপস্থিতি স্বতঃস্ফূর্ত ছিল। তারা ভোটটা দিতে পারেনি। মেশিনটা স্লো। ভেতরে একটা ইঞ্জিনিয়ারিং হয়েছে; নাহলে এত ডিফারেন্স হতে পারে না।

এটা খেলা হয়েছে সরকার ভার্সাস জনগণ, সরকার ভার্সাস তৈমূর আলম খন্দকার।’