মিয়ানমার থেকে ফিরেছে ৪৮ বাংলাদেশি


260 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মিয়ানমার থেকে ফিরেছে ৪৮ বাংলাদেশি
ডিসেম্বর ৩, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি ও মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের মধ্যে আজ বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠক শেষে ৪৮ জন বাংলাদেশি অভিবাসীকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার ইমিগ্রেশন। এসব অভিবাসীরা সম্প্রতি সাগর পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় মিয়ানমার নৌ-বাহিনীর হাতে আটক হয়।
আজ বুধবার দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) একটি প্রতিনিধি দল মিয়ানমার ঢেকিবনিয়াস্থ ইমিগ্রেশন অফিসে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের সঙ্গে পতাকা বৈঠকে মিলিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবির ২০ সদস্যের প্রতিনিধি দল। বৈঠকে বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজারস্থ ১৭ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজিবি কক্সবাজার সেক্টরের অতিরিক্ত পরিচালক মেজর মো. আমিনুল ইসলাম, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাবরিনা ফেরদৌসী, মেডিকেল অফিসার ডা. রবিউর রহমান রবিসহ কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশ কর্মকর্তাবৃন্দ ও আইওএম’র প্রতিনিধি।
অপরদিকে, মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন মিয়ানমার ইমিগ্রেশনের ডিপুটি ডাইরেক্টর মি. সু-নাইন।
বৈঠকে শেষে সাংবাদিক ব্রিফিংকালে কক্সবাজার ১৭ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার জানান, দু’দেশের সীমান্ত পর্যায়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রেখে চোরাচালান, অনুপ্রবেশ ও মাদক পাচার প্রতিরোধে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে।
আজ বুধবারে ফেরত আসা অভিবাসীদের মধ্যে কক্সবাজারের ১৯ জন, যশোরের ১২ জন, নারায়নগঞ্জের ৩ জন, পাবনা ১ জন, খুলনা ১ জন, নোয়াখালী ১ জন, কিশোরগঞ্জের ১ জন, গোপালগঞ্জের ১ জন, কুষ্টিয়ার ২ জন, সিরাজগঞ্জের ৩ জন এবং টাঙ্গাইলের ৪ জন।
উখিয়া সহকারী পুলিশ সুপার আবদুল মালেক মিয়া জানান, ফেরত আসা অভিবাসীদের কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে রাখা হবে। সেখান থেকে যাচাই বাছাই করে পুলিশের মাধ্যমে পরিবার পরিজনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে ৮ জুন ১৫০ জন, ১৯ জুন ৩৭ জন, ২২ জুলাই ১৫৫ জন, ১০ আগস্ট ১৫৯ জন, ২৫ আগস্ট ১২৫ জন, ১২ অক্টোবর ১০৩ জন এবং আজ বুধবার ২ ডিসেম্বর ৪৮ জনসহ ৭৭৭ জন অভিবাসীকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।