মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা মীমাংসিত: ট্রাইব্যুনাল


294 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা মীমাংসিত: ট্রাইব্যুনাল
ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের বিষয়টি মীমাংসিত ইস্যু উল্লেখ করে এ সংখ্যা নিয়ে বিতর্কের অবকাশ নেই বলে জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

মঙ্গলবার একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে নেত্রকোণার দুই রাজাকার মো. ওবায়দুল হক তাহের ও আতাউর রহমান ননীর বিরুদ্ধে মামলার রায়ের পর্যবেক্ষণে ট্রাইব্যুনাল এ বক্তব্য দেন।

রায়ে রাজাকার তাহের ও ননীকে সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড দেন বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। ট্রাইব্যুনালের অপর দুই সদস্য হলেন, বিচারপতি শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দী।

তাহের ও ননীর মামলার রায়ের পর্যবেক্ষণে ট্রাইব্যুনাল বলেন, ‘স্বাধীনতাযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের বিষয়টি একটি মীমাংসিত ইস্যু। এ নিয়ে পুনরায় বিতর্কের প্রয়োজন নেই। এই ৩০ লাখ মানুষের আত্মদানেই স্বাধীন বাংলাদেশ।’

ট্রাইব্যুনাল আরও বলেন, ‘কেউ কেউ শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করছেন, যা দুর্ভাগ্যজনক।’

মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিএনপি চেয়ারপাসন খালেদা জিয়ার বক্তব্যের পর এ নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গণে পাল্টাপাল্টি প্রতিক্রিয়া চলছে। এরই মধ্যে ট্রাইব্যুনাল থেকে মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে এ বক্তব্য এলো।

নেত্রকোণার দুই রাজাকার তাহের ও ননীর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় নিরস্ত্র মানুষকে হত্যা, নির্যাতন,অপহরণ, লুটপাট এবং অগ্নিসংযোগসহ ছয়টি অভিযোগ ছিল। এর মধ্যে দুটি অভিযোগে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন ট্রাইব্যুনাল। আরও দুটি অভিযোগে তাদেরকে দেওয়া হয় আমৃত্যু কারাদণ্ড। বাকি দুই অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি।