মোবাইল ফোন সেবার ওপর বর্ধিত কর আদায় শুরু


326 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মোবাইল ফোন সেবার ওপর বর্ধিত কর আদায় শুরু
জুন ৩, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
২০১৬-১৭ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে মোবাইল সেবার ওপর আরোপ করা অতিরিক্ত দুই শতাংশ সম্পূরক কর আদায় শুরু হয়েছে।

মোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটব জানিয়েছে, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, অর্থমন্ত্রী সংসদে বাজেট ঘোষণার পর থেকেই নতুন করহার কার্যকর হয়ে যায়। অবশ্য ২ মে দুপুরের পর বাজেট ঘোষণা করা হলেও অপারেটররা নতুন করহার কার্যকর করে রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে। এরইমধ্যে অপারেটরদের পক্ষ থেকে এসএমএস পাঠিয়ে নতুন কর আদায়ের কথা জানানো হচ্ছে। ভয়েস কল, মোবাইল ইন্টারনেট এসএমএস, এমএমএসসহ সিমকার্ডভিত্তিক সব সেবার জন্য বর্ধিত কর নেয়া হচ্ছে। তবে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বর্ধিত করের আওতায় পড়ছে না বলে জানিয়েছে অ্যামটব।

অন্যদিকে, অতিরিক্ত সম্পূরক কর প্রত্যাহারের জন্য শুক্রবার অনুরোধ জানিয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটর রবি। রবির ভাইস প্রেসিডেন্ট (কমিউনিকেশন অ্যান্ড করপোরেট রেসপনসিবিলিটি) ইকরাম কবীর এক বিৃতিতে বলেন, ‘আশঙ্কা করা হচ্ছে মোবাইল সেবায় বর্ধিত করের কারণে সার্বিকভাবে মোবাইল টেলিযোগাযোগ খাত থেকে রাজস্ব কমে যাবে। কারণ অতিরিক্ত করের কারণে গ্রাহকরা সেবা গ্রহণের হার কমিয়ে দেবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘মোবাইল খাতকে বৈষম্যমূলকভাবে উচ্চহারে কর্পোরেট কর দিতে হচ্ছে।’ এই খাতে আরও বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য তিনি কর্পোরেট কর কমানোরও অনুরোধ জানান।

এর আগে অ্যামটব ও গ্রামীণ ফোনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবারই বর্ধিত কর প্রত্যাহারের অনুরোধ জানানো হয়।

শুক্রবার সকালেই একাধিক অপারেটরের মোবাইল গ্রাহকরা একটি এসএমএস পান। যাতে বলা হয়, সরকার মোবাইল সেবার ওপর সম্পূরক শুল্ক ৩ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি করে ৫ শতাংশ করেছে। এরইমধ্যে গ্রাহকের সেবামূল্যে বর্ধিত কর প্রতিফলিত হয়েছে।

এ ব্যাপারে অপর একটি অপারেটরের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানান, অর্থমন্ত্রী যেদিন সংসদে বাজেট প্রস্তাব করেন, সেদিন রাত ১২টা ১ মিনিট থেকেই নতুন হারে কর দিতে হয় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে। যে কারণে ওই সময় থেকে নতুন কর যোগ করা ছাড়া অপারেটরদের কোনো উপায় নেই।

তিনি বলেন, ‘বিগত অর্থবছরের বাজেটের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটে। প্রথমে ৫ শতাংশ সম্পূরক কর আরোপ করা হয়। প্রায় এক মাস ৫ শতাংশ হারে সম্পূরক কর আদায়ের পর বাজেট পাসের পূর্ব-মুহূর্তে সম্পূরক কর ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩ শতাংশ করা হয়। এরপর আবারও করহার ৩ শতাংশে নেমে আসে। কিন্তু জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে জুন মাসের ২৮ দিনের করের ক্ষেত্রে ৫ শতাংশ হারেই সম্পূরক শুল্ক পরিশোধ করতে হয়।’

এবারও শেষ মুহূর্তে করহারে পরিবর্তন আসুক বা না আসুক পুরো জুন মাস গ্রাহককে অতিরিক্ত দুই শতাংশ বর্ধিত করের বোঝা বহন করতেই হবে বলেও জানান তিনি।

বর্ধিত করের কারণে ২ মে রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে গ্রাহকরা ভয়েস কল, মোবাইল ইন্টারনেট সেবা এবং এসএমএসসহ  সিমকার্ডভিত্তিক সব ধরনের মোবাইল সেবার ক্ষেত্রে মোট ২১ শতাংশ বাড়তি কর দিতে হচ্ছে। এর মধ্যে ১৫ শতাংশ ভ্যাট, ৫ শতাংশ সম্পূরক কর ও ১ শতাংশ সারচার্জ। তবে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার ক্ষেত্রে বাড়তি কর প্রযোজ্য হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে অ্যামটব জানায়, সিমকার্ডের মাধ্যমে যেসব সেবা সরাসরি গ্রাহকের কাছে যায় সেসব সেবার ক্ষেত্রেই কেবলমাত্র বর্ধিত কর প্রযোজ্য হবে। মোবাইল ব্যাংকিং সেবা সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের মাধ্যমে গ্রাহকের কাছে যায়। এ কারণে এক্ষেত্রে মোবাইল অপারেটরের নেটওয়ার্ক ব্যবহৃত হলেও গ্রাহক বর্ধিত করের আওতায় পড়বেন না।