যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ইতিহাস গড়লেন দুই মুসলিম নারী


253 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ইতিহাস গড়লেন দুই মুসলিম নারী
নভেম্বর ৭, ২০১৮ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক
ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিব। ছবি: এএফপি ও ইউটিউবইলহান ওমর ও রাশিদা তালিব। ছবি: এএফপি ও ইউটিউবযুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে এই প্রথম দুজন মুসলিম নারীকে নির্বাচিত করলেন ভোটাররা। মিনেসোটা ও মিশিগানের ভোটাররা তাঁদের প্রতিনিধি হিসেবে ডেমোক্র্যাট সদস্য ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিবকে নির্বাচিত করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার মধ্যবর্তী নির্বাচনে ভোট নেওয়া হয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে মুসলিমবিদ্বেষী মনোভাব গড়ে ওঠে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের মধ্যে। এমন পরিস্থিতে এই দুজনের জয় ইতিহাস গড়ল।

মিনেসোটা থেকে নির্বাচিত ৩৬ বছর বয়সী ইলহান ওমর সোমালিয়া থেকে আসা শরণার্থী। যুক্তরাষ্ট্রে আসার পর এখানকার নাগরিকত্ব পান। শিশু বয়সে তিনি চার বছর কেনিয়ার একটি শরণার্থীশিবিরে ছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে এই প্রথম হিজাব পরা সদস্য হতে যাচ্ছেন ওমর।

অন্যদিকে, মিশিগানে জয়ী রাশিদা তালিবও ইতিহাস গড়েছেন। ৪২ বছর বয়সী এই সমাজকর্মী ডেট্রয়েটে এক ফিলিস্তিনি অভিবাসীর ঘরে জন্ম নেন। ১৪ ভাইবোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। ২০০৮ সালে প্রথম মুসলিম নারী হিসেবে তিনি মিশিগান আইন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

আমেরিকান ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর) নামক এক সংগঠনের জরিপে দেখা যায়, ২০১৮ সালের প্রথম ছয় মাসে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমবিদ্বেষী অপরাধের হার বেড়েছে ২১ শতাংশ।