যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ালমার্টের দোকানে গুলি, নিহত ২০


92 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ালমার্টের দোকানে গুলি, নিহত ২০
আগস্ট ৪, ২০১৯ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে ওয়ালমার্টের একটি দোকানে বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত ২০ জন নিহত এবং ২৬ জন আহত হয়েছে।

শনিবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তের কয়েক মাইলের মধ্যে টেক্সাসের এল পাসো শহরে ওয়ালমার্টের একটি দোকানে গুলির এই ঘটনা ঘটে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, এ ঘটনায় সন্দেহভাজন ২১ বছর বয়সী শেতাঙ্গ এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ওই যুবক একাই এই হামলা চালিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মার্কিন গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, সন্দেহভাজন ব্যক্তির নাম প্যাট্রিক ক্রুসিয়াস, তার বসবাস ডালাসে।

এল পাসোর পুলিশ প্রধান গ্রেগ অ্যালেন জানান, সকাল ১০টা ৩৯ মিনিটে পুলিশ প্রথম ওয়ালমার্টের দোকানটিতে গোলাগুলির খবর পায়। হামলার সময় দোকানটিতে বেশ ভিড় ছিল। খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ছয় মিনিটের মধ্যে ঘটনাস্থলে হাজির হয়।

সিসিটিভি ফুটেজে কালো টি-শার্ট পরিহিত একজনকে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র হাতে দেখা যায়। ওই ব্যক্তিই হামলা চালিয়েছে বলে মার্কিন গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে।

টেক্সাসের মেয়র গ্রেগ অ্যাবট একে দেশটির ইতিহাসে অন্যতম ভয়াবহ দিন বলে বর্ণনা করেছেন। এছাড়া সন্দেহভাজন যুবককে আটক করা পুলিশের প্রশংসা করেন তিনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই হামলার ঘটনাকে ‘কাপুরুষোচিত কর্মকাণ্ড’ বলে আখ্যায়িত করেছে। এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘দেশের প্রতিটি মানুষের সঙ্গে আমিও আজকের এই ঘৃণ্য কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানাই। নিরপরাধ মানুষ হত্যার ন্যায্যতা প্রমাণ করার মতো কোনো কারণ বা অজুহাত নেই।’