যুক্তরাষ্ট্রে সেই এফবিআই এজেন্টের সাজা


360 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
যুক্তরাষ্ট্রে সেই এফবিআই এজেন্টের সাজা
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৫ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বিডিনিউজ
সজীব ওয়াজেদ জয়কে ‘অপহরণের ষড়যন্ত্র’ করে যুক্তরাষ্ট্রে জেলে যাওয়া রিজভী আহমেদ সিজার তথ্য পাওয়ার জন্য যাকে ঘুষ দিয়েছিলেন, সেই এফবিআই এজেন্ট রবার্ট লাস্টিককেও সাজা দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত। নিউইয়র্কের হোয়াইট প্লেইন্স ফেডারেল আদালতের বিচারক ভিনসেন্ট ব্রিকেটি সোমবার এ রায় ঘোষণা করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ ওই বাংলাদেশি রাজনীতিকের নাম-পরিচয় প্রকাশ না করলেও গত মার্চে সিজারের রায়ের পর বাংলাদেশে জাতীয় সংসদে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়, যেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ক্ষতি করতে তার তথ্য পেতেই ওই ঘুষকাণ্ডের কথা উঠে আসে।

মার্কিন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে সংরক্ষিত তথ্য ঘুষের বিনিময়ে সরবরাহ করার অপরাধে এ মামলায় লাস্টিককে পাঁচ বছর জেল খাটতে হবে। আর কারাভোগের পর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারিতে থাকতে হবে আরও দুই বছর।
এফবিআইর সাবেক স্পেশাল এজেন্ট রবার্ট লাস্টিক বর্তমানে আরেকটি মামলায় ১০ বছরের সাজা খাটছেন। দুই সাজা পরপর কার্যকর হবে বলে আদালতের রায়ে উল্লেখ করা হয়েছে।
একই ঘটনায় এর আগে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সহসভাপতি ও জাসাসের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি মোহাম্মদ উল্লাহ মামুনের ছেলে রিজভী আহমেদ সিজারের সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড এবং ঘুষ লেনদেনে মধ্যস্থতাকারী যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক জোহানেস থালেরের আড়াই বছরের জেল হয়েছে।

ঘুষ লেনদেনের ঘটনায় ২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট গ্রেফতার হন থালের ও সিজার। এরপর গত বছরের ১৭ অক্টোবর তারা আদালতে দোষ স্বীকার করে জানান, ২০১১ সালের সেপ্টেম্বর থেকে পরের বছর মার্চ পর্যন্ত সময়ে ঘুষ নিয়ে লাস্টিকের সঙ্গে তাদের আলোচনা হয়।

জবানবন্দিতে সিজার বলেছিলেন, বিপরীত মতাদর্শের একজন বাংলাদেশি রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গোপন নথি এবং ‘সন্দেহজনক’ কর্মকাণ্ডের বিষয়ে একটি প্রতিবেদন পাওয়ার জন্য তিনি ঘুষ সাধেন। লাস্টিক প্রাথমিকভাবে ৪০ হাজার ডলার এবং পরে মাসিক ভিত্তিতে ৩০ হাজার ডলারের বিনিময়ে ‘সব তথ্য’ দিতে রাজি হন।