রমজান মাস এবং ভারি বৃষ্টি : তালায় নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য বৃদ্ধি


424 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
রমজান মাস এবং ভারি বৃষ্টি : তালায় নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য বৃদ্ধি
মে ১৮, ২০১৮ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান ::
পবিত্র রমজান মাসের শুরুতেই তালায় শবজি বাজারে সকল শবজির দাম দ্বিগুন হয়েছে। গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার যেসব শবজির দাম ছিল ২০ টাকা কেজি তা’ রমজানের শুরুতেই ৪০টাকা হয়েছে। রমজানকে সামনে রেখে সকল পন্যের দাম নিয়ন্ত্রন রাখতে বিভিন্ন ভাবে প্রচার-প্রচারোনা চালানো হলেও তা কোনও কাজে আসেনি। বরং অসাধু ব্যবসায়ীরা তাদের অধিক মুনাফা করেই যাচ্ছে। দাম বৃদ্ধির ক্ষেত্রে শুদু শবজি বিক্রেতারাই বসে নেই! সমানতালে রয়েছে মুদি ব্যবসায়ীরা থেকে শুরু করে মাছ ও ফল ব্যবসায়ীরাও। নিত্য প্রয়োজনীয় সকল পন্যের দাম বৃদ্ধিতে সাধারন মানুষ বিপাকে পড়েছে।
শুক্রবার রমজানের প্রথমদিন বিকালে তালা কাচা বাজার ঘুরে দেখা যায়, কাচা কলা, পটল, বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা কেজি দরে। যা একদিন আগেও ২০ থেকে ২৫ টাকার মধ্যে পাওয়া গেছে। ৬০ টাকা কেজি দরের উচ্ছে বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা দরে। মিষ্টি কুমড়ার দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৪ টাকা, লাউ প্রতিপিসের দাম বেড়েছে ৮/১০ টাকা হারে। এছাড়া কাচা মরিচ সহ খিরাই, শশা সহ অন্য সকল কাচা তরিতরকারির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। দাম বৃদ্ধির একই অবস্থা মাছ বাজারেও। মাছ বাজারে একদিকে মাছ রয়েছে অপ্রতুল অবস্থায়। তার সাথে যেসব মাছ বাজারে আসছে তারমধ্যে বিশেষ করে তেলাপিয়া, মৃগেল সহ সবরকম কার্প জাতীয় মাছ, পাঙ্গাস টেংরা ও চিংড়ি মাছের দাম পূর্বের তুলনায় বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া দাম বেড়েছে ভোজ্য তৈল থেকে শুরু করে মুদি দোকানের রমজান সংশ্লিষ্ট ছোলা, মুড়ি, চিনির দাম। একই অবস্থা ফল বাজারেও। তরমুজ ও খেজুরের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে আগের তুলনায়। একদিনেই ফার্মের মুরগীর দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ১৫টাকা। পোল্ট্রি ফার্ম ব্যবসায়ী শেখ সিদ্দিক জানান, বুধ ও বৃহস্পতিবার যে মুরগী পাইকারী ১২৫ টাকা ছিল তা আজ (শুক্রবার) বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা কেজি দরে। ফার্মে মুরগী কমে যাওয়ায় এই দাম বৃদ্ধি বলে তার বক্তব্য।
তবে, রমজানকে সামনে রেখে দাম বৃদ্ধির কথা স্বীকার না করে কাচা বাজারের ব্যবসায়ী সুমান, মিরাজ ও খাইরুল জানান, প্রচন্ড বৃষ্টির কারনে চাষীরা ক্ষেতে যেতে পারছেনা। যেকারনে বাজারে কাচা তরিতরকারি কম আসায় এবং কিছুটা রোজাকে কেন্দ্র করে সব কাচামালের দাম বেড়েছে। বৃষ্টি এইভাবে চললে সকল কাচামালের দাম আরো বৃদ্ধি পাবে বলেও ব্যবসায়ীরা জানান। মাছ ব্যবসায়ী শংকর বিশ্বাস জানান, বাজারে মাছ কম আসায় দাম একটু বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে রমজানের কারনে মুড়ি, ছোলা, ভোজ্য তৈল ও চিনির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন মুদি ব্যবসায়ী পরেশ সাধু।

##