রাবিতে দিনব্যাপি কোয়ান্টাম মেথড’র আলোকচিত্র প্রদর্শনী


395 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
রাবিতে দিনব্যাপি কোয়ান্টাম মেথড’র আলোকচিত্র প্রদর্শনী
ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

রাবি প্রতিনিধি:
‘দৃষ্টিভঙ্গি বদলান জীবন বদলে যাবে’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মেডিটেশনের (ধ্যান) সুফল সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের অবহিত করতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোয়ান্টাম মেথডের রাজশাহী শাখার আয়োজনে মঙ্গলবার সকাল ৯ টা থেকে দিনব্যাপী এ প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার চত্বরে আয়োজিত এ প্রদর্শনীতে শতাধিক আলোকচিত্র প্রদর্শন করা হয়।
জানা যায়, শিক্ষার্থীরা ঘুরে ঘুরে আলোকচিত্রগুলো দেখছেন। অনেকেই ছবি তুলছেন। আর আয়োজকরা মেডিটেশনের সুফল সম্পর্কে সবাইকে ধারণা দিচ্ছেন।
আয়োজক কমিটির অর্গানিয়ার আরিফুল ইসলাম জকি বলেন, মানুষের মস্তিষ্ক পরিচালিত হয় মন দ্বরা। এ কারণে মনকে নিয়ন্ত্রণ করতে মেডিটেশন অত্যন্ত জরুরি। মানুষ অনেক কাজই মনোযোগ সহকারে করতে পারে না। একনিষ্টভাবে কোন কজে মনোযোগ দিতে না পারার কারণে অনেক সময় কাজটি ভালোভাবে করা সম্ভব হয় না।
তিনি আরও বলেন, মানুষ মৃত্যু পর্যন্ত তার মস্তিষ্কের মাত্র পাঁচ শতাংশ ব্যবহার করেন। এছাড়া মানুষের জীবনের ৭৫ শতাংশ রোগের জন্য মস্তিষ্কই দায়ী। বেশির ভাগ রোগ টেনশন থেকেই হয়ে থাকে। এ সব সমস্যা দূর করতে মেডিটেশন কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।
কথা হয় প্রদর্শনী দেখতে আসা সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী শাহিন খানের সাথে। তিনি বলেন, ‘আমি মেডিটেশন সম্পর্কে শুনেছি। তবে আমাদের দেশে মেডিটেশনের চর্চা খুবই কম হয়। উন্নত দেশগুলো এ পদ্ধতি ব্যাপকভাবে প্রচলিত। আমাদের দেশের মানুষকেও মেডিটেশন পদ্ধতির যথাযথ ব্যবহার করা দরকার।’
ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী সুজন আলী বলেন, ‘মেডিটেশন সম্পর্কে আগে থেকে ধারনা ছিল। মেডিটেশন মানুষের মনকে সুস্থ রাখার একটি কার্যকরী পদ্ধতি। রাবিতে এরকম প্রদর্শনী দেশের বড় বড় তারকাদের মেডিটেশনের আলোকচিত্র দেখে খুব ভালো লাগলো।’