রুশো-হেলসের দিনে ম্লান চিটাগং


226 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
রুশো-হেলসের দিনে ম্লান চিটাগং
জানুয়ারি ২৬, ২০১৯ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

নিজেদের দিনে ইংল্যান্ড ওপেনার অ্যালেক্স হেলস কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান রাইলি রুশো একাই প্রতিপক্ষেকে উড়িয়ে দিতে পারেন। রংপুরের গেইল কিংবা ডি ভিলিয়ার্সের একজন খেললেই তাদের সঙ্গে পেরে ওঠা দুষ্কর। আর চিটাগংয়ের হয়ে একই সঙ্গে খেললেন অ্যালেক্স হেলস আর রাইলি রুশো। তাদের দু’জনের দিনে পেরে ওঠা যে কোন দলের জন্যই অসম্ভবকে সম্ভব করার মতো কাজ। সেই কাজটা মুশফিকুর রহিমের দল করতে পারেনি। তারা রংপুরের পাহাড় টপকাতে গিয়ে হেরেছে ৭২ রানে।

শুক্রবার চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয় আসরের অন্যতম শক্তিশালী দল রংপুর রাইডার্স এবং পয়েন্ট টেবিলে রাজত্ব করা চিটাগং ভাইকিংস। ঘরের মাঠে চিটাগং দুর্দান্ত দল রংপুরকে হারাবে এই ছিল ভক্তদের প্রত্যাশা। গেইল-ভিলিয়ার্সের ব্যাটে ঝড় দেখার প্রত্যাশা করলেও অবশ্য অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। কিন্তু সাগরিকার স্থানীয় দর্শকদের সামনে ঝড় তুললেন হেলস এবং রুশো। তাদের ব্যাটে ভর করে বিপিএল ইতিহাসের সর্বোচ্চ ২৩৯ রান তোলে রংপুর রাইডার্স।

দলের হয়ে রেকর্ড রান তোলার দিনে জোড়া সেঞ্চুরি আসে অ্যালেক্স হেলস এবং রাইশি রুশোর ব্যাট থেকে। টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে একই ইনিংসে দু’জনের সেঞ্চুরি পাওয়ার ঘটনা এ নিয়ে তিনবার। এছাড়া তারা দু’জন বিপিএলের তৃতীয় সর্বোচ্চ ১৭৪ রানের জুটি গড়েন। হেলস পুরোপুরি একশ’ রান করে আউট হন। আর রুশো একশ’ করে অপরাজিত থাকেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে চিটাগংয়ের ইনিংস থামে ১৬৭ রানে। ভাইকিংসের হয়ে ইয়াসির আলী ৪৮ বলে তিন ছক্কা ও ছয় চারে ৭৮ রান করেন। চিটাগংয়ের হেলস কিংবা রুশো হয়ে ওঠার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেননি। এছাড়া মোহাম্মদ শাহজাদ করেন ২০ রান। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। শাহজাদ-মুশফিকরা সেট হয়ে ফিরে গেলে আর লড়াই করা হয়নি চিটাগংয়ের।

রংপুরের হয়ে এ ম্যাচেও ভালো বোলিং করেন মাশরাফি মর্তুজা। তিনি ৪ ওভারে ৩৫ রান দেয় নেন ৩ উইকেট। ফরহাদ রেজা নেন ২ উইকেট। শহিদুল ইসলাম ও নাজমুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন। চিটাগংয়ের হয়ে দুটি উইকেট নেন আবু জায়েদ। দুর্দান্ত ইনিংস খেলা হেলস নাকি রুশো কে হবেন ম্যাচ সেরা। এমন প্রশ্ন ছিলই। তবে ওপেনার হেলসকে ম্যাচ সেরা হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে।