রোনালদোর হ্যাটট্রিক, সেমিতে রিয়াল মাদ্রিদ


339 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
রোনালদোর হ্যাটট্রিক, সেমিতে রিয়াল মাদ্রিদ
এপ্রিল ১৯, ২০১৭ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় লেগেও নিজেকে মেলে ধরলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। মঙ্গলবার সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে তার দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিকে রিয়াল মাদ্রিদ বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ৪-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। আর প্রথম ও দ্বিতীয় লেগ মিলিয়ে ৬-৩ ব্যবধানে বায়ার্ন মিউনিখকে পরাজিত করে টুর্নামেন্টের শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করে রিয়াল মাদ্রিদ।

মিউনিখে প্রথম লেগে রিয়াল মাদ্রিদ ২-১ গোলে স্বাগতিকদের হারানোর সুবাদে নিজেদের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে এগিয়ে থেকে লড়াই শুরু করে রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের শুরু থেকেই নিজেদের দারুণভাবেই তুলে ধরে জিনেদিন জিদানের দল। বেশ কিছু আক্রমণ করে রোনালদো-বেনজেমারা।  কিন্তু তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন জিদানের শিষ্যরা।

রিয়ালের আক্রমণের জবাব দিয়েছে বায়ার্ন  মিউনিখও। কিন্তু রোবেন-লেভানডোস্কিদের দুর্দান্ত কিছু শট দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন রিয়াল গোলরক্ষক কেইলর নাভাস। এর ফলে গোলশুন্য ড্র নিয়েই বিরতিতে যায় দুই দল।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই পেনাল্টি পায় বায়ার্ন মিউনিখ। সুযোগ কাজে লাগাতে মোটেই কোন ভুল করেননি চোট কাটিয়ে দলে ফেরা রবার্ট লেভানডোস্কি। ম্যাচের ৭৬ মিনিটে রোনালদো গোল করলে আবারও স্বস্তি ফিরে রিয়াল শিবিরে। কিন্তু তার এক মিনিট পরই সার্জিও রামোসের আত্মঘাতী গোলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় বায়ার্ন মিউনিখ।

যে কারণে ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই ম্যাচ শেষ করে বায়ার্ন মিউনিখ। মিউনিখে প্রথম লেগের ম্যাচটাও একই ব্যবধানে জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। যে কারণেই দুই দলের ফলাফল তখন ৩-৩। তাই ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

অতিরিক্ত সময়ের ১০৪ মিনিটে আবারও গোল করে রিয়াল মাদ্রিদকে এগিয়ে দেন রোনালদো। সেইসঙ্গে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে প্রথম ফুটবলার হিসেবে ১০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন সিআর সেভেন। ম্যাচের ১০৯ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিকটাও পূর্ণ করে নিলেন তিনি।

বায়ার্নের জালে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন অ্যাসেনসিও। করিম বেনজেমার বদলি হিসেবে মাঠে নেমে দুর্দান্ত পারফর্ম করা এই তারকা স্ট্রাইকার ১১২ মিনিটে রিয়ালের চার নাম্বার গোলটি করেন। সেইসঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদ ৬-৩ ব্যবধানে বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে ইউরোপ সেরার এই টুর্নামেন্টের শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করে।