রোহিঙ্গা সংকটের সহজ কোনো সমাধান নেই : যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী


365 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
রোহিঙ্গা সংকটের সহজ কোনো সমাধান নেই : যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
আগস্ট ৩০, ২০১৮ জাতীয় প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
‘রোহিঙ্গা সংকটের সহজ কোনো সমাধান নেই। বহুমাত্রিক এ সংকটের সমাধান না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাজ্য।’

বৃহস্পতিবার ঢাকায় যুক্তরাজ্য হাইকমিশনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন সফররত ব্রিটিশ পররাষ্ট্র ও আর্ন্তজাতিক উন্নয়ন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যালেস্টার বার্ট। এ সময় তিনি বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন স্বচ্ছ পরিবেশে অংশগ্রহণমূলকভাবে অনুষ্ঠিত হবে বলে প্রত্যাশা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক।

অ্যালেস্টার বার্ট বাংলাদেশ সফরে এসে গত ২৯ আগস্ট কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। একই দিন তিনি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৃহস্পতিবার তিনি গুলশানের বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিএনপি নেতাদের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অ্যালেস্টার বার্ট বলেন, রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায় ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর থেকেই উদ্বিগ্ন। সর্বশেষ জাতিসংঘের ফ্যাক্টস ফাইন্ডিংস কমিটির রিপোর্ট থেকে রাখাইনে সংঘটিত ঘটনাবলী এবং রোহিঙ্গা সংকটের নানা দিক সম্পর্কে অনেক তথ্য পাওয়া গেছে।

তিনি জানান, যুক্তরাজ্য জাতিসংঘ ফ্যাক্টস ফাইন্ডিংস কমিটির রিপোর্টকে স্বাগত জানিয়েছে। তিনি নিজেও রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন। তার অভিজ্ঞতাও তিনি যেখানে সম্ভব সেখানেই তুলে ধরবেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে যুক্তরাজ্যের প্রতিমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা সংকট আসলে বহুমাত্রিক সংকট। আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায় এ সংকট সমাধানে নানা উদ্যোগ অব্যাহত রেখেছে। সেগুলো সফল হলে সংকটের কার্যকর সমাধান আসবে বলে আশা করা যায়। এ ব্যাপারে নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় ভিন্নমত থাকলেও সংকটের সমাধান যে জরুরি, তাতে কোনো দ্বিমত নেই বলে মনে করেন তিনি।

অ্যালেস্টার বার্ট বলেন, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনই সংকটের সবচেয়ে কার্যকর সমাধান। কিন্তু তারা রাখাইনে ফিরে গিয়ে মর্যাদা ও নিরাপত্তার সঙ্গে বসবাসের নিশ্চিত পরিবেশ না পেলে সংকটের শেষ হবে না। এ কারণে যুক্তরাজ্য চায় রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছা ও সম্মানজনক প্রত্যাবাসন, চায় প্রত্যাবাসনের পর বসবাসের যথাযথ নিরাপত্তা।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠকে যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত একাধিক মামলার আসামী তারেক রহমানকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে আলাপ হয়েছে কি না জানতে চাইলে যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোনো ব্যক্তি কিংবা ব্যক্তিসংক্রান্ত কোনো বিষয়ে যদি আলাপ হয়েও থাকে, সে বিষয়ে তার পক্ষে কোনো কিছু প্রকাশ করা সম্ভব নয়।