লাবসায় প্রাচীনতম মসজিদটি অক্ষত রেখে নতুন মসজিদ নির্মাণের দাবী


1070 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
লাবসায় প্রাচীনতম মসজিদটি অক্ষত রেখে নতুন মসজিদ নির্মাণের দাবী
এপ্রিল ৭, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আব্দুর রহমান ::

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা গ্রামের জমিদার মৃত মুন্সি ইমাদুল হকের রেখে যাওয়া প্রাচীনতম মসজিদটি জনস্বার্থে অত্যান্ত ঝুকিপূর্ণ এবং মুসুল্লিদের নমাজের স্থান সংকুলান না হওয়ায় পাশে নতুন মসজিদটির নিশাণ কাজ শুরু করার দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় মুসুল্লিরা।

শুক্রবার (৭এপ্রিল) জুমআ’র নামাজ শেষে মসজিদের শত শত মুসল্লীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে এ দাবী জানান। মুসুল্লিরা জানান, প্রাচীনতম এই মসজিদটি অক্ষত রেখে মুসল্লীদের নামাজ আদায়ের স্বার্থে পাশে নতুন মসজিদ নির্মাণ অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। কিন্তু একটি স্বার্থান্বেষি মহল নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। পুরাকীর্তি নাম ভাঙ্গিয়ে নতুন মসজিদ নির্মাণ কাজে বাঁধা সৃষ্টি করছে। স্

থানীয় মুসল্লীদের দাবী, প্র্রাচীনতম এই মসজিদটিতে নামাজের স্থান সংকুলান হয় না। বিধায় মসজিদটি অক্ষত রেখে নতুন মসজিদটির নির্মাণ কাজ করা। নতুন মসজিদ নির্মাণে মাসয়ালা হলো, যদি কোনো মসজিদে মুসল্লিদের স্থান সংকুলান না হয়, তাহলে আরেকটি মসজিদ নির্মাণের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়।

এ ক্ষেত্রে সতর্কতা হলো, এতটুকু দূরত্বে মসজিদ নির্মাণ করবে, যাতে এক ইমামের কিরাতের সঙ্গে অন্য মসজিদের ইমামের কিরাত সাংঘর্ষিক না হয়। তবে উভয় মসজিদের মাঝখানে যদি কেবল একটি দেয়াল থাকে, তবু উভয় স্থানে পৃথক জামাত আদায় করা বৈধ। (ফতোয়ায়ে মাহমুদিয়া : ১৪/৪১০)

শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বর্তমানে পুরাকীর্তি মসজিদটির পাশে অর্ধেক নির্মান অবস্থায় নতুন মসজিদটির কাজ বন্ধ রয়েছে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

মুসুল্লিরা জানান, দ্রুত বন্ধ হয়ে যাওয়া মসজিদটি নির্মাণ কাজ শুরু না হলে মানববন্ধন, স্মারকলিপি প্রদানসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে।
এ ব্যাপারে এলাকাবাসী ও সাধারণ মুসল্লীরা নতুন মসজিদটির নির্মাণ কাজ শুরু করার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কৃর্তপক্ষ, জনপ্রতিনিধিসহ প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
##