অস্ত্র মামলায় সাবেক এমপি কাদের খানের যাবজ্জীবন


93 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অস্ত্র মামলায় সাবেক এমপি কাদের খানের যাবজ্জীবন
জুন ১১, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

অবৈধভাবে অস্ত্র রাখার দায়ে গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ কর্নেল (অব) আবদুল কাদের খানের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া অবৈধভাবে গোলাবারুদ রাখার দায়ে কাদের খানের আরও ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার গাইবান্ধার বিশেষ জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় দেন।

আব্দুল কাদের খান গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি ও ২০১৬ সালে ওই আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় তৎকালীন সাংসদ মনজুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি।

তিনি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছাপরহাটি ইউনিয়নের পশ্চিম ছাপরহাটি (খানপাড়া) গ্রামের মৃত নয়ান খানের ছেলে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) শফিকুল ইসলাম জানান, অবৈধ অস্ত্র রাখায় আব্দুল কাদের খানকে যাবজ্জীবন ও অবৈধ গোলাবারুদ মজুত রাখায় ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর লিটনকে তার নিজ বাড়িতে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় লিটনের বোন তাহমিদা বুলবুল বাদী হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় ৪-৫ জনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলা করেন।

ঘটনার প্রায় দুই মাস পর বগুড়া থেকে কাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর কয়েক দফা তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।

প্রথম রিমান্ডে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে লিটন হত্যার দায় স্বীকার করেন কাদের।

কাদেরের দেওয়া তথ্যানুযায়ী ছয় রাউন্ড গুলি ও ম্যাগজিনসহ একটি পিস্তুল উদ্ধার করে পুলিশ। এ নিয়ে পুলিশ কাদেরের বিরুদ্ধে মামলা করে এবং গত ৬ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।