শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি ফেরি চলাচল ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্ধ


249 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি ফেরি চলাচল ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্ধ
সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
পবিত্র ঈদুল আয্হায় ঘরমুখো মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি ফেরা নিশ্চিত করতে শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের চ্যানেলগুলোতে পুরোদমে শুরু হয়েছে ড্রেজিং কাজ। এ উপলক্ষ্যে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আজ শুক্রবার সকাল থেকে সকল প্রকার ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ। ফেরি বন্ধ থাকবে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এ সময় এ রুটের যানবাহনগুলোকে অন্য রুট ব্যবহারের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এ রুটে সকল প্রকার ফেরি চলাচল বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিমুলিয়াস্থ বিআইডব্লিউটিসি’র উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. আশিকুজ্জামান আশিক। তিনি জানান, নির্বিঘ্নে ফেরি চলাচলের জন্য চায়নার শক্তিশালী ড্রেজার ব্যবহার করে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে জেগে ওঠা চর কাটা হচ্ছে। ঈদে ঘরমুখো মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি ফেরা নিশ্চিত করতেই ১১ থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই রুটে ফেরি বন্ধ রেখে যেসব স্থানে পলি পড়েছে তা খনন করা হবে।

নাব্যতা সংকটের কারণে দীর্ঘদিন যাবৎ এ রুটে ফেরি চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছিল। দু’একটা ফেরি দিয়ে কোন রকমে সচল রাখা হয়েছিল দেশের দক্ষিণ বঙ্গের অন্যতম প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌ-রুট। কিন্তু ঈদের আর বেশিদিন বাকি নেই। আগামি কয়েকদিনের মধ্যে ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপ সৃষ্টি হবে এ রুটে। বিষয়টি মাথায় রেখে দ্রুত এ নাব্যতা সংকট কাটানোর উদ্দেশ্যে এখানে পুরোদমে ড্রেজিং চালাচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ। ডেজিং কাজের তদারকি করছেন বিআইডব্লিউটিএ’র নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান আহম্মেদ।

তিনি জানান, তাদের সাথে যোগ হয়ে গত ২রা সেপ্টেম্বর থেকে এ রুটে পদ্মা সেতুর কাজে নিয়োজিত মেজর চায়না ব্রিজ কোম্পানির শক্তিশালী সিনোহাইড্রো ড্রেজার বসানো হয়। কিন্তু ফেরি চলাচলের কারনে ড্রেজিং কাজে বিঘ্ন ঘটায় ফেরি চলাচল পুরোপুরি বন্ধ ঘোষণা করে একটি প্রঞ্জাপন জারি করেছে বিআইডব্লিউটিএ। এ রুটে চলাচলকারী সকল প্রকার যানবাহনকে অন্য রুট ব্যবহার করার অনুরোধ জানিয়েছেন বিআইডব্লিউটিএ।—সুত্র:-বাংরাদেশ প্রতিদিন।