শিশু রাজন হত্যায় ৪ জনের ফাঁসি


281 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শিশু রাজন হত্যায় ৪ জনের ফাঁসি
নভেম্বর ৮, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভযেস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
সিলেটে আলোচিত শিশু সামিউল আলম রাজন (১৩) হত্যা মামলায় প্রধান আসামি কামরুলসহ ৪ জনের ফাঁসি, একজনের যাবজ্জীবন ও তিনজনের ৭ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়ায় ৩ জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

রবিবার দুপুরে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক আকবর হোসনে মৃধা এ রায় ঘোষণা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মফুর আলী।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কুমারগাঁও বাসস্ট্যান্ডের পার্শ্ববর্তী শেখপাড়ার বাসিন্দা কামরুল ইসলাম, জালালাবাদ থানার পীরপুর গ্রামের মৃত মব উল্লাহর ছেলে সাদিক আহমদ ময়না ওরফে বড় ময়না ওরফে ময়না চৌকিদার (৪৫), শেখপাড়া গ্রামের সুলতান মিয়ার ছেলে তাজউদ্দিন আহমদ ওরফে বাদল (২৮) ও সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার ঘাগটিয়া গ্রামের অলিউর রহমান ওরফে অলিউল্লাহর ছেলে মো. জাকির হোসেন পাভেল ওরফে রাজু (১৮)। এর মধ্যে পাভেল পলাতক রয়েছে।

এদিকে, আলোচিত এই হত্যা মামলায় পূর্ব জাঙ্গাইল গ্রামের মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিনের ছেলে ভিডিওচিত্র ধারণকারী নূর আহমদ ওরফে নূর মিয়াকে (২০) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া প্রধান হোতা কামরুল ইসলামের মেজো ভাই মুহিদ আলম (৩২), বড়ভাই আলী হায়দার ওরফে আলী (৩৪) ও ছোটভাই শামীম আলমকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসাথে তাদের ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ২ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া এই হত্যা মামলায় খালাস পেয়েছেন ফিরোজ আলী, আজমত উল্লাহ ও রুহুল আমিন।

এর আগে, গত ২৭ অক্টোবর সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক আকবর হোসেন মৃধা রবিাবর এই রায়ের তারিখ নির্ধারণ করেন।

প্রসঙ্গত, গত ৮ জুলাই সিলেট নগরীর কুমারগাঁওয়ে শিশু সামিউল আলম রাজনকে নির্মমভাবে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়। নির্যাতনের ভিডিওচিত্র সামাজিক ও গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশ-বিদেশে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় ওঠে।