শুকনো মৌসুমে রাস্তায় কাদা-পানি, দুর্ঘটনায় হাত-পা ভাংলো মোটর সাইকেল চালকের


236 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শুকনো মৌসুমে রাস্তায় কাদা-পানি, দুর্ঘটনায় হাত-পা ভাংলো মোটর সাইকেল চালকের
ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

॥ নাজমুল আলম মুন্না ॥

সাতক্ষীরা সদরের সাতক্ষীরা টু ভোমরা সড়কের গাংনিয়া ব্রীজ সংলগ্ন মসজিদের সামনের এক সড়ক দুর্ঘটনায় ভাড়ায় চালিত এক মোটরসাইকেল চালকের হাত-পা ভেঙ্গে গেছে। আহত মোটর সাইকেল চালক ভোমরা ইউনিয়নের লক্ষীদাড়ি গ্রামের আমির আলী মোল্লার ছেলে আব্দুল আওয়াল (৫৫)।

সদর হাসপাতালের বিছানায় কাতরানো অবস্থায় কান্নাজড়িত কন্ঠে তিনি বলেন মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ভোমরা হতে একজন প্যাসেঞ্জার নিয়ে সাতক্ষীরার উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে আলিপুর ইউনিয়নের গাংনিয়া ব্রীজ সংলগ্ন মসজিদের সামনে আসলে সেখানে শুকনো রাস্তার উপর হটাৎ কাদামাটি ও পানি দেখে ব্রেকে পা দিলেই মোটর সাইকেলসহ ছিটকে রাস্তার পাশে পড়ে যাই। এতে আমার ডান পায়ের হাটু এবং ডান হাতের আঙ্গুল ভেগে যায়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন আমি একটুর জন্য প্রাণে বেচে গেছি কিন্তু পঙ্গু হয়ে গেলাম শুধু ট্রলিতে ইটভাটায় মাটি টানার কারনে।

তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হতে ভোমরা বন্দরের রাস্তায় প্রতিবছর এভাবে শুকনো মৌসুমে ইটভাটায় মাটিবহনের ট্রলি থেকে সড়কের রাস্তায় অনেক কাদামাটি পড়ে থাকতে দেখা যায়। কিন্তু এই কাদামাটি পরিস্কারের কোন উদ্যোগ নিতে কাউকে কোনদিন দেখিনি। এরফলে অনেকের অনাকাংখিত দুর্ঘটনার শিকার হয়ে জীবন দিতে হচ্ছে। এছাড়া অনেকে পঙ্গুত্ব বরণ করছে। ব্যাক্তিগত স্বার্থে ইটভাটার সম্পদশালী মালিকরা প্রতিদিন ট্রলিতে করে মাটি বহন করার সময় এসব মাটি শুকনো রাস্তায় ফেলে রেখে যায়। যারফলে সাধারণ মানুষের জীবন হানিসহ মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটছে প্রতিনিয়ত। যারা মহাসড়কে অবাধে এসব জগণ্য কর্মকান্ড করছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কাছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ভূক্তভোগীসহ এলাকার সচেতন মানুষ।

#