শ্যামনগরের ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মোজাহিদুলের সংবাদ সম্মেলন


195 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরের ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মোজাহিদুলের সংবাদ সম্মেলন
আগস্ট ১১, ২০১৮ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::
শ্যামনগরের গাবুরা ইউপির নাপিতখালির মোজাহিদুল পরিবারকে বারবার হয়রানি করার চেষ্টা চালিয়ে আসছিল ইউপি সদস্য রহিম মাস্টার ও তার ভাই নুরী। এরই জেরে মোজাহিদুল,কবিরুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান,মনিরুল ইসলাম, সেলিম,অহিদুজ্জামান, শহিদুল ইসলাম ও কালাম মোড়লের নামে সাতক্ষীরা চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা হয়। এই মামলায় ৯ আগস্ট চারজন জামিন নেন। জামিন লাভের এই খবর শুনে ইউপি মেম্বর রহিম মাস্টারও তার ভাই নুরী ক্ষিপ্ত হয়ে বনের নদীতে কাঁকড়া ধরতে যাবার সময় হামলা করে। এতে শাহনাজ মোড়ল ও অহিদুজ্জামান গুরুতর আহত হন। এ সময় চিকিৎসা নেওয়ার জন্য যাতে তারা শ্যামনগর যেতে না পারেন সেজন্য নৌকা ও ট্রলার চালকদের হ্যান্ডেল কেড়ে নেয় তারা। পরে নৌ পুলিশের সহায়তায় শ্যামনগর হাসপাতালে ভর্তি হন তারা। এখনও তাদের ভয়ে মোজাহিদুল সমর্থকরা বাড়ির বাইরে আসতে পারছেন না।
শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেন মোজাহিদুল ইসলাম । তিনি বলেন শনিবার দুপুরে রহিম মাস্টার ও নুরী তাদের সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে মোজাহিদূলসহ অন্যদের বাড়িঘর ভাংচুরের চেষ্টা চালায়। এতে ভীত হয়ে গ্রামটি পুরুষ শুন্য হয়ে পড়ে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন দ্বীপ ইউনিয়ন গাবুরায় বিএনপি নেতা রহিম মাস্টার ও তার ভাই চিহ্ণিত মাদক ব্যবসায়ী নুরীর অত্যাচারে মানুষ অতীষ্ঠ। তাদের কাছে এলাকার সাধারন মানুষ জিম্মি হয়ে আছে। তারা নাশকতামূলক নানা অপরাধের সাথে জড়িত বলেও উল্লেখ কবরেন তিনি।
তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন এবং হামলা ভাংচুর ও মারপিটের প্রতিকার দাবি করে মোজাহিদুল সাতক্ষীরার পুলিশ সুপারের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।