শ্যামনগরের এম পি জগলুল হায়দার ও তার ভাই বাবুর বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন সংখ্যালঘু এক পরিবারের


672 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরের এম পি জগলুল হায়দার ও তার ভাই বাবুর বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন সংখ্যালঘু এক পরিবারের
জুলাই ৯, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরার-৪ (শ্যামনগর ও কালিগঞ্জের আংশিক ) আসনের সংসদ সদস্য স,ম জগলুল হায়দার ও তার ভাই সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি জহুরুল হায়দার বাবু’র ক্ষমতার অপব্যবহারের কারনে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক গৃহবধূ। বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মনোরঞ্জন মন্ডলের স্ত্রী অমেলা রানী মন্ডল।
সংবাদ সম্মেলনে অমেলা রানী মন্ডলের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান তার স্বামী মনোরঞ্জন মন্ডল। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোক হওয়ায় ১৯৯৪ সাল থেকে জহুরুল হায়দার বাবু তাকে কু-প্রস্তাব ও  যৌন হয়রানী করার জন্য লিপ্ত থাকে। বাবু’র কু-প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তাকে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন ও হয়রানি করতে থাকে। বাবু’র এসব কু-কর্মে সহযোগিতা  করে তার ভাই স,ম জগলুল হায়দার। তাকে যৌন হয়রানি করতে না পেরে স,ম জগলুল হায়দারের সার্বিক সহযোগিতায় বর্তমান জহুরুল হায়দার ২০০৮ সালে তার মেয়ে সুপ্রিয়া মন্ডলকে অপহরণ করে। এঘটনায় স,ম জগলুল হায়দার ও জহুরুল হায়দার বাবুসহ তাদের সঙ্গীয় লোকদের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শ্যামনগর থানায় একটি মামলা দয়ের করেন। মামলা নং জিআর-৮৩/২০০৮। বর্তমানে স,ম জগলুল হায়দার সাতক্ষীরা-৪ আসনের এমপি ও তার ভাই জহুরুল হায়দার বাবু সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি হওয়ার তার সঙ্গীয় লোকজন পরিতোষ মন্ডল গংরা  তার পরিবারের সদস্যদের মারপিট , নির্যাতন ও যৌন হয়রানি করায় তিনি তাদের লোকজনের নামে শ্যামনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-জিআর-৩৯৪/১৪।
তিনি লিখিত অভিযোগে আরো বলেন, বর্তমান এমপি স,ম জগলুল হায়দার ও  তার ভাই বিশেষ পিপি জহুরুল হায়দার বাবু’র ক্ষমতার অপব্যবহার এবং অবৈধ দাপটের কারনে তিনি ও তার পরিবার ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। একই সাথে তার নামে মিথ্যে মামলা দিয়ে তাকে হয়রানি ও ক্ষতিগ্রস্থ করছেন। তাদের দুই ভাইয়ের ইশারায় লেলিয়ে দেয়া পুলিশ ও তাদের লোকজনের অত্যাচারে তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছাড়া হয়ে বর্তমানে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।  তিনি তাদের দুই ভাই ও তাদের লোকজনের অত্যাচার এবং নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্যাইব্যুনালের বিশেষ পিপি জহুরুল হায়দার বাবু বলেন, অমেলা রানী মন্ডল একজন মামলাবাজ। সে বিভিন্ন মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যে ও হয়রানিমূলক মামলা করে থাকে। বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় নারী ও শিশু দমন আদালত সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্টের জারি করেছে। বর্তমানে সে পলাতক আসামি।আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ করেছে তা মিথ্যে।
সাতক্ষীরা-৪ আসনের এমপি স.ম জগলুল হায়দার বলেন, ওই মহিলা যেসব অভিযোগ করেছে তা সবই মিথ্যে। আমার সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য সাবেক এমপি গোলাম রেজার উস্কানিতে সে এ ধরনের অভিযোগ করেছে।আমার বা আমার ভাই এর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনে যে অভিযোগ করেছে তা মিথ্যে ও বানোয়াট, উদ্দেশ্য প্রনোদিত।