শ্যামনগরে মৎস্য ঘের দখলকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলায় ১ জন নিহত, আহত-৫, আটক-৯


295 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরে মৎস্য ঘের দখলকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলায় ১ জন নিহত, আহত-৫, আটক-৯
অক্টোবর ৮, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান/আবুল কাশেম :
সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা এলাকায় মৎস্য ঘের দখলকে কেন্দ্র দখলকারী সন্ত্রসীদের হামলায় শফিকুল ইসলাম (৪০) নামে এক ঘের মালিকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাত ১২ টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় ।

নিহত শফিকুল ইসলাম উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের খোলপেটুয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার খানের ছেলে। এ সময় আহত হয় আরো প্াচ জন। আহতরা হলেন, নিহত শফিকুল ইসলামের স্ত্রী পারুল বেগম, ছেলে রায়হান, হালিম, হাবিবুল্লাহ ও নেওয়াজ।

গাবুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুদুল আলম তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বুধবার সকালে শফিকুল ইসলামদের ৬০ বিঘা জমির একটি মৎস্য ঘের দখল করতে হামলা চালায় একই এলাকার লোকমানসহ তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী। তাৎক্ষণিক তিনি খবর দিলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে, এরই মধ্যে সন্ত্রাসীরা শফিকুলসহ পাচজনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাতœক জখম করে। তাদেরকে উদ্ধার করে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে শফিকুলকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে, সেখান থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরো জানান, দীর্ঘদিন ধরে এই চক্রটি ওই ঘেরটি দখলের চেষ্টা চালাচ্ছিল। এর আগে ওই ঘের নিয়ে এডিসি  (রেভিনিউ), ইউএনও তার পরিষদেও কয়েকবার বসাবসি করেছেন। প্রত্যেকবারই রায় পায় শফিকুলরা। কিন্তু লোকমান শেষ পর্যন্ত দখল করতে মরিয়া হয়ে ওঠে।

এদিকে, আমাদের শ্যামনগর প্রতিনিধি এস কে সিরাজ জানান, আটককৃতেদর নাম পরিচয় জানাগেছে। আটককৃতরা হলো, গাবুরার খোলপেটুয়া গ্রামের দুদু গাজীর ছেলে আব্দুর রহিম(৪৫), দাউদ গাজীর ছেলে সেকেন্দার(৩৮), নুর ইসলাম(২৫), লোকমানের ছেলে শরিফুল(৩২), সুলতান গাজীর ছেলে মনির গাজী(৩৮), সেকেন্দারের ছেলে আসাদুল(৩৫), আনছার আলীর ছেলে জামান(৩৫), মোজাম গাজীর ছেলে নজরুল (৩৭), তলাই গাজীর স্ত্রী রিজিয়া খাতুন।

এ ব্যাপারে শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইনামুল হকের ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, চিংড়ি ঘের নিয়েই বিরোধ। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বুধবার রাতে শফিকুল ইসলাম চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। এ ঘটনায় নিহতের চাচাতো ভাই বেল্লাল হোসেন বাদী হয়ে ৩৭ জনের নাম উল্লেখ করে শ্যামনগর থানায় একটি মামলা করেছেন। যার মামলা নং-৮। এই মামলাই এ পর্যন্ত ৯ জনকে আটক করা হয়েছে।