শ্যামনগরের ধুমঘাটে বিএনপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর ৫ কর্মীর বাড়িঘর ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ : আহত-১০


458 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরের ধুমঘাটে  বিএনপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর ৫ কর্মীর বাড়িঘর ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ : আহত-১০
মার্চ ১৬, ২০১৬ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান/ ইব্রাহিম খলিল, শ্যামনগরের ধুমঘাট থেকে ফিরে :
সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ঈশ্বরীপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা সংখ্যালঘু পরিবারের বাড়িঘরসহ বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর ৫ কর্মীর বাড়িঘর ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ করেছে। এ সময় কমপক্ষে ১০জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নের ধুমঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভাংচুর করা  হয়েছে ২০/২৫টি মটর সাইকেল।
আহতরা হলেন, ধুমঘাট গ্রামের আলিবুদ্দিগাইনের ছেলে আবু দাউদ গাইন, ভাই আবু বক্কর গাইন, স্ত্রী সাবিনা খাতুন, একই গ্রামের আব্দুল ওহাব, আছিয়া বেগম, তিন বছরের শিশু মায়া, আলম, সঞ্জয় মন্ডল, শিল্পি রানী, আব্দুল গনি ও আব্দুল হামিদ। আহতদের শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জিএম সাদেকুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জিএম শোকর আলি ও তার সমর্থরা পরিকল্পিতভাবে এই সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। এসময় তারা ধুমঘাট এলাকার সঞ্জয় মন্ডল, উত্তম মন্ডল, অঞ্জন মন্ডল,আবু বক্কর গাইন ও দাউদ গাইনের বাড়িতে হামলা করে। পরে তারা ওই তিনটি বাড়িতে ভাংচুর করে এবং ধান ও খড়ের গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে বাধা দিতে গেলে অন্তত ১০জনকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে।

তবে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শোকর আলি বলেছেন তিনি এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না। তিনি বা তার কোনো লোকজন এ ধরনের ঘটনার সাথে জড়িত নয় বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি জানান এটি একটি সাজানো নাটক।
সাদেকুর রহমানের নির্বাচনী কর্মী আবদুল ওয়াহাব জানান ‘রাতে শোকর আলির সমর্থকরা ধুমঘাটের সঞ্জয় কুমারের বাড়িতে চড়াও হয়ে তার  পরিবারের সদস্যদের মারপিট করতে থাকে । এক পর্যায়ে তারা তার বাড়ির চারটি ঘর ভাংচুর করে। ধান ও খড়ের গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয়’। এরপর একই গ্রুপ একই গ্রামের  দাউদ গাইন ও আবুবকর গাইনের বাড়ির দুটি ঘর ভাংচুর করে। তিনি জানান , খবর পেয়ে তাদের রক্ষা করতে গেলে তাদেরও ওপরও চড়াও হয় শোকর আলির লোকজন।  এ সময় তাদের (সাদেকুর এর কর্মী-সমর্থকরা) ব্যবহৃত ২০/২৫ টি মোটর সাইকেল ও ইঞ্জিন ভ্যান  ভেঙ্গে গুড়িয়ে পানিতে ফেলে দেয় তারা ’। তিনি আরো জানান, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শোকর আলীর সমর্থক গোলাম মোস্তফা বাংলা ভাই, কাদের, রুবেল,জাহিদ, রায়হান,শাহজাহান,আনিসুর,সেবাদুলসহ ২০ থেকে ৩০ জন এ হামলা চালায়।
খবর পেয়ে শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) এনামুল হক ও  উপপরিদর্শক আমিনুল ইসলাম একদল পুলিশ সদস্য নিয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তার আগেই হামলাকারীরা এলাকা ত্যাগ করে।
ওসি জানান এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে । দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##