শ্যামনগরে দশম শ্রেণির ছাত্রী অপহৃতর ঘটনায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন


328 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরে দশম শ্রেণির ছাত্রী অপহৃতর ঘটনায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন
ডিসেম্বর ১৫, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

স্ট্ফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বড় কুপট গ্রামের শহিদুল সরদারের ছেলে আহছান সরদারের বিরুদ্ধে ছোটকুপট গ্রামের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শ্যামনগর থানায়  ৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে ওই ছাত্রীর পিতা। ১৬ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো অপহৃতকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

অপহরণকারীসহ তার সহযোগীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও অপহৃতকে উদ্ধারের দাবিতে মঙ্গলবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ওই ছাত্রীর পিতা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২৯ নভেম্বর সকালে স্কুলে যাওয়ার সময় তার দশম শ্রেণিতে পড়–য়া কন্যাকে বড় কুপট গ্রামের শহিদুল সরদারের ছেলে আহছান সরদার জোরপূর্বক অপহরণ করে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর গত ৩০ নভেম্বর ০১৭৯৬৩১৪২০৭ নম্বরের মোবাইল ফোন থেকে তাকে ফোন করে বলা হয় তাদের মেয়ে সাতক্ষীরা শহরে আছে। এরপর ২ ডিসেম্বর আহছানের পরিবারের সদস্যরা আটুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বাড়িতে গিয়ে অপহৃত ছাত্রীকে ২ দিনের মধ্যে ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু পরে তারা টালবাহনা করে।

কোন উপায় না পেয়ে মেয়েকে অপহরণের ঘটনায় গত ৫ ডিসেম্বর শ্যামনগর থানায় ৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন ওই ছাত্রীর পিতা।
মামলায় আহছান সরদার, তার পিতা শহিদুল সরদার, মাতা শরিফা সরদার, চাচা শফিকুল সরদার, আজিজুল মোড়ল ও ই¯্রাফিল হোসেনকে আসামি করা হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার মেয়েকে দ্রুত উদ্ধার ও অপহরণকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।