শ্যামনগরে নবযাত্রা প্রকল্পের উদ্যেগে “জাতীয় যুব দিবস উদযাপন”


179 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরে নবযাত্রা প্রকল্পের উদ্যেগে “জাতীয় যুব দিবস উদযাপন”
নভেম্বর ৩, ২০১৯ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

“আমেরিকান সরকারের আন্তজার্তিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি) এর ফুড ফর পিস (টাইটেল-২) খাদ্য সহায়তা কার্যক্রমের অর্থায়নে ‘নবযাত্রা’ একটি পাঁচবছর মেয়াদী প্রকল্প; যা ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে শুরু হয়েছে এবং ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে শেষ হবে। ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর নেতৃত্বে নবযাত্রা প্রকল্প অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম, উইনরকইন্টারন্যাশনাল এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পটি বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম উপকূলীয় সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ ও শ্যামনগর এবং খুলনা জেলার দাকোপ ও কয়রা উপজেলার ৮,৫৬,১১৬ জন উপকার ভোগীর জন্য বাস্তবায়িত হচ্ছে। স্থানীয় বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) সুশীলন নবযাত্রা কর্মসূচীর সুশাসন, জেন্ডার, এবং গ্র্যাজুয়েশন কার্যক্রমের সঞ্চয়ী দল সম্পর্কিত কার্যাবলী বাস্তবায়ন করছে। ওয়ার্ল্ড ভিশনবাংলাদেশ সুশীলনে’র সাথে খুলনা ও সাতক্ষীরা জেলায় বাল্যবিবাহ বন্ধে ও যুবদের উন্নয়নের সচেতনতামূলক নানা কর্মসূচী পালন করে থাকে। সমাজের সকল অংশের সাথে নেটওয়ার্ক তৈরির মাধ্যমে সমন্বিত ভাবে বাল্যবিবাহ বন্ধেও যুবদের উন্নয়নে কাজ করার জন্য ও যুবদের বাস্তব ভিত্তিক জ্ঞান, চ্যালেঞ্জ এবং উত্তরণের বিষয়ে সঠিকভাবে নির্দেশনার জন্য প্রকল্পটি কাজ কওে থাকে।

“দক্ষ যুব গড়বে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সাতক্ষীরার শ্যামনগরউপজেলায়যুবউন্নয়নঅধিদপ্তর, উপজেলা প্রশাসন ও নবযাত্রা প্রকল্পের সমন্বিত আয়োজনে জাতীয় যুবদিবস ২০১৯ পালন করা হয়।উপজেলা সম্মেলন কক্ষে মোঃ আনিছুর রহমান সহকারী যুব উন্নয়ন অফিসারের সঞ্চলনায় উপজেলা সম্মেলন কক্ষে উক্ত দিবস উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠনের যুব, শ্যামনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান,সহকারী কমিশনার (ভুমি), উপজেলা সহকারী যুবউন্নয়ন অফিসার, শ্যামনগর এবং বিভিন্ন এসজি ও অন্যান্য সরকারি ও বেসরকরি সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে শ্যামনগর বাজারের প্রধান প্রধান সড়কে শ্লোগান সম্বলিত একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয় এবং র‌্যালী শেষে উপজেলা সম্মেলন কক্ষে আলোচানা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় সভাপতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ শহিদুল ইসলাম সহকারী যুব উন্নয়ন অফিসার, প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এস এম আতাউল হক (দোলন), বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন খালেদা আইয়ুব (ডলি), মমতা চক্রবর্তী জেন্ডার অফিসার ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ,এস এম জাকির হোসেন, মোঃআসাদুজ্জামান (রিপন) টেকনিক্যাল অফিসার-জেন্ডার, নবযাত্রা প্রকল্প শ্যামনগর।

প্রধান অতিথি বলেন, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বর্তমানে ডিজিটাল বাংলাদেশ যুবদের উন্নয়নের জন্য যেভাবে উদ্দ্যোগ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে তাতে আমাদের যুবকরা স্বনির্ভর হবে। সরকারের উদ্দ্যেগকে অব্যাহত ও গতিশীল করার জন্য নিজেদের জায়গা থেকে যুবদের উন্নয়ন করতে পারবে সে ব্যাপারে গুরুত্ত্বপূর্ন বক্তব্য ও দিকনির্দেশনা দেন।তিনি বলেন যুবদের উন্নয়নের জন্য সরকার যে ভাবে উদ্দ্যেগ গ্রহণ করেছে, সে উদ্যেগকে আমরা স্বাগত জানাই এবং যবুদের উন্নয়নের জন্য তাদেরকে সমাজিক মূল্যবোধ সর্ম্পকে জানাতে হবে এবং সকল পর্যায় থেকে সচেতন হতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মসংস্থানের মাধ্যমে যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে।তিনি বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে যুবদের বড় ভুমিকা পালনের জন্য আহব্বান করেন। প্রধান অতিথি বলেন বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ উপস্থাপন করেন এবং এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন।

শ্যামনগর উপজেলাকে বাল্যবিবাহ মুক্ত করার সহযোগীতা করার জন্য যুবক্লাবে যুবকদের কাজ করার জন্য বিশেষ ভাবে আহবান করেন। তিনি আরো বলেন, যুবক্লাবকে সামজিক দায়িত্ব পালন করতে হবে, বাল্যবিবাহর বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে। এ সময় তিনি বাল্যবিবাহের নানান কূফল আলোচনা করেন। বাল্যবিবাহ বন্ধে তিনি সরকারের কঠোর অবস্থানের কথা তুলে ধরেন ও সরকারের প্রতিশ্রুতিকে আরো জোরদার করার জন্য যুবক্লাবদের বেশি বেশি কাজ করার জন্য আহবান জানান। নবযাত্রা প্রকল্প সাপোর্টেড ৫টি যুবক্লাবের নতুন নিবন্ধনের সনদপত্র বিতরন করেন।যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সাথে নবযাত্রা প্রকল্প একত্রে কাজ করার জন্য নবযাত্রা প্রকল্পকে “সম্মাননা স্মারক” হিসাবে একটি ক্রেস্ট প্রদান করেন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি