শ্যামনগরে মুন্নি হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন,বিক্ষোভ সমাবেশ ও কালো ব্যাচ ধারন


1181 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরে মুন্নি হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন,বিক্ষোভ সমাবেশ ও কালো ব্যাচ ধারন
জুলাই ২৯, ২০১৬ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

এস কে সিরাজ,শ্যামনগর :
সাতক্ষীরার শ্যামনগর মুন্সিগন্জ গ্যারেজ এলাকায় শুক্রবার বিকালে গৃহবধু রাবেয়া আক্তার মুন্নি হত্যার বিচার দাবী করে ওই এলাকার দু’গ্রাম আবাদচন্ডিপুর ও মুন্সিগন্জ গ্যারেজ এলাকার হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। এসময় তারা রাস্তায় মানববন্ধন, বিক্ষোভ, সমাবেশ ও কালো ব্যাচ ধারনের মাধ্যমে প্রসাশনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

গত বৃহস্পতিবার সুন্দরবন উপকুলীয় শ্যামনগর মুন্সিগন্জ গ্যারেজ এলাকায়  সকালে দিকে নব বিবাহিত রাবেয়া খাতুন মুন্নি নামে এক গৃহবধু গলায় দড়ি দিয়ে মারা গেছে। তবে এনিয়ে এলাকায় চলে নানা গুঞ্জন। নিহত গৃহবধুর নাম হলো রাবেয়া খাতুন মুন্নি ,পিতা সিদ্দীকুল ইসলাম । তার বাপের বাড়ী উপজেলার আবাদ চন্ডিপুর গ্রামে।

মুন্নির বিয়ে হয় বছর খানিক আগে বিয়ে হয় উপজেলার মুন্সিগঞ্জ গ্যারেজ এলাকার ফরিদ গাজীর ছেলে আশরাফুল আলম সিমুলের সাথে। এর পর স্বামী স্ত্রীর মধ্যে নানা কারনে ঝগড়া বিপাদ লেগেই থাকতো। হঠাৎ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে এলাকাবাসী জানতে পারে গৃহবধু গলায় দড়ি দিয়ে মারা গেছে। গ্রামবাসীরা ছুটে যেয়ে দেখেন বাড়ীর ঘরের দরজা খোলা ও প্রবেশ পথের গেটে তালা ঝুলানো। এ সময় মুন্নির  শ্বশুর, শাড়ী, ও স্বামী কেউ বাড়ীতে ছিল না। পরে তারা বাড়ীতে এসেই দেখে মুন্নি মারা গেছে। এ নিয়ে নানা ভাবে বিষয়টি এলাকায় গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।এলাবাসী বলছে এটি হত্যা জনিত ঘটনা ,আবার অনেকেই বলছে গৃহবধু  নিজেই আত্বহত্যা করেছে।তবে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এদিকে বিষয়টি পারিবারিক ভাবে সমাধান করে নিহত মুন্নিকে কবরস্থ করে।কিন্ত গ্রামবাসীরা কিছুতেই মুন্নির মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছেনা। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে এসময় বক্তব্য রাখেন,ওই এলাকার সমাজসেবক আব্দুল গফুর, সাবেক মেম্বর মোঃ খায়রুল ইসলাম,জাহাঙ্গীর আলম,মামুন গাজী, মোঃ খলিফা রহমান সহ আরো অনেকেই।

তারা বলেন, মুন্নির শ্বশুর ফরিদ গাজী একজন দুশ্চরিত্রের লোক, তার খারাপ আচারনে আজ নববধু মুন্নি মারা গেছে।