শ্যামনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়কের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন যুবলীগ নেতার


440 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়কের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন যুবলীগ নেতার
সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

শ্যামনগর প্রতিনিধি :
রোববার শ্যামনগর প্রেস ক্লাবে শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের পক্ষ থেকে আওয়ামী যুবলীগের বির্তকিত আহবায়ক গোলাম মোস্তফা ওরফে বাংলা ভাই-এর অনৈতিক ও সংগঠন পরিপস্থি কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা যুবলীগের বর্তমান কমিটির যুগ্ম আহবায়ক শেখ আব্দুস সালাম।

উপজেলা যুবলীগ নেতা শেখ আব্দুস সালাম তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, শ্যামনগরে যুবলীগের সাংগঠনিক তৎপরতা দীর্ঘদিন ধরে লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। চাঁদাবাজী আর দখলদারিত্ব নিয়ে ব্যস্ত এ সংগঠনটি। সংগঠনটি শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামীলীগকে উপেক্ষা করে, অগণতান্ত্রিকভাবে কর্মকান্ড পরিচালনা করায় দলীয় রাজনীতি থেকে ক্রমশ:ই পিছিয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, একটি আহবায়ক কমিটি দিয়ে শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ পরিচালিত হচ্ছে । বর্তমান কমিটির দলীয় এবং সরকারী কোন কর্মসূচিতে তাদের অংশগ্রহণ নেই বললেই চলে। গত ১৫ আগস্টে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামীলীগে সকল সহযোগী সংগঠন অংশ গ্রহণ করলেও যুবলীগের কোন অংশ গ্রহণ ছিল না। গুরুত্বপুন দলীয় কর্মসূচীতে সংগঠনের কোন অংশ গ্রহণ না থাকায় ত্যাগী ও  পরিক্ষীত সাধারণ নেতা কর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

শ্যামনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক হিসাবে গোলাম মোস্তফা ওরফে বাংলা ভাই দায়িত্ব লাভের পর থেকে এক নায়কতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে দলীয় কর্মসূচী এবং সাংগঠনিক কর্মকান্ড হতে বিরত থেকে এলাকায় ঘের দখল, জমি দখল আর চাদাঁবাজী অব্যাহত রেখেছে। শ্যামনগরে সংখ্যালঘুদের আতঙ্কের নাম এখন বাংলা ভাই। এসকল ঘটনার কারনে যুবলীগের আহবায়ক গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে থানায় বা আদালতে প্রায় হাফ ডজন মামলা চলমান আছে। উপজেলার ধুমঘাট গ্রামের বসুদেব মন্ডল, বংশীপুর গ্রামের ক্ষাম্যুদ্যুতি মন্ডল, শিশির মন্ডল , ধানখালী গ্রামের কৃষ্ণা মুন্ডা, ধুমঘাট গ্রামের সুকুমার মন্ডল, সাবেক ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ মাহবুবুল হকের জমি ও চিংড়ী ঘের দখল করে নিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হয়েছে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার শ্যামনগর উপজেলা আইন শৃঙ্খলা মিটিংয়ে বিষয়টি নিয়ে কথিত বাংলা ভাইয়ের বিরুদ্ধে ব্যাপক  আলোচনার ঝড় ওঠে।  এ মিটিং হতে রেজুলেশন করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানোর জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এধরনের একটি গুরুত্বপুর্ন সংগঠনিক পদে থেকে দলের কর্মকান্ডে ভুমিকা না রেখে দখলদারিত্ব অব্যাহত রাখায় ত্যাগী ও সাধারণ যুবলীগ নেতাদের মধ্য ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য স.ম আব্দুস সাত্তার, শ্যামনগর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মোশারাফ হোসেন, যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান, শেখ হারুন, জাফর, জাকির হোসেন গালিভার, ইমরান, রায়হান সিদ্দিকী মিঠু, আহছানুর রহমান, আলহাজ্ব হারুনার রশিদ, আব্দুর রাজ্জাক, সাজু, রেজুয়ানুল আযাদ নিপুন, শেখ জাবের হোসেন, শেখ নাজিম উদ্দীন, আবুল বাশার, এনায়েত হোসেন সহ শতাধিক যুবলীগের নেতাকর্মী।