শ্যামনগর সংবাদ ॥ প্রেসক্লাবের সভাপতির অসুস্থ মায়ের পাশে সাংবাদিকরা


355 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগর সংবাদ ॥ প্রেসক্লাবের সভাপতির অসুস্থ মায়ের পাশে সাংবাদিকরা
অক্টোবর ৫, ২০১৬ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

এস কে সিরাজ,শ্যামনগর :
শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জি এম আকবর কবীরের মা  আয়েশা বেগম বাধক্য জনিত কারনে বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ হয়ে বাড়ীতে আছেন।
বুধবার সকালে শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের কর্মরত সাংবাদিকরা সভাপতির অসুস্থ মায়ের পাশে যেয়ে সমবেদনা জানান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রেসক্লাব সিনিয়র সাংবাদিক এস কে সিরাজ, আনিসুজ্জামান সুমন,শেখ আফজাল, আবু সাইদ,কামরুজ্জামান সাগর,মারুফ হোনেন,আবু মুছা, মিজানুর রহমান, আসাদুজ্জামান লিটন প্রমুখ।
এদিকে শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আকবর কবীর শ্যামনগর বাসী সহ সকল মানুষের কাছে দোয়া চেয়েছেন তার মায়েন জন্য।
এসময় কর্মরত সাংবাদিকরা আকবর কবীরের মায়ের সুস্থতা কামনা করেছেন।
####

বখাটেদের থাবায়  শ্যামনগর তোফাজ্জেল বিদ্যালয়ের ছাত্র রিপন এখন হাসপাতালে
এস কে সিরাজ,শ্যামনগর ব্যুরো।। মেয়েদের উত্তাক্ত করা বখাদের বাধা দেয়ায় ব্যাপক মার খেতো হলো শ্যামনগর তোফাজ্জেল বিদ্যা পিঠের দশম শ্রেনীর ছাত্র ও কৈখালী ইউনিয়নের কৈখালী গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে রিপন ( ১৫) ।বর্তমানে রিপন শ্যামনগর হাসপাতালের ১০ নং বেডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সময় পার করছেন।
হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে , উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের সোনাখালী তোফাজ্জেল বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের প্রায় সময় উত্তাক্ত করতো স্থানীয় জহুরুল ইসলামের ছেলে সোহাগ ও সামাদের ছেলে সুমন। এতে বাধা দেয়, ওই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্র রিপন।
এঘটনার জের ধরে সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে রিপনকে মারপিট করা হয়।
বিষয়টি রিপন কাউকে না  বলে ঘটনাটি এড়িয়ে যায়।তারপরও আবারো বখাটেরা দুপুর ১২টার দিকে স্কুলের ভিতরে ঢুকে ব্যাপক মারপিট করে।
এদিকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে শ্যামনগর হাসপাতালে ভর্তি করে।
রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সময়ে থানায় মামলার প্রস্ততি চলছিল।
এদিকে সোহাগ, সুমনের পক্ষ থেকে ঘটনাটি অনাংখিত বলে মিমাংসার চেষ্টা করছিল বলে জানা গেছে।

####

কাশিমাড়ীতে মাছ চুরির অভিযোগে  দুই ব্যক্তি আটক

শ্যামনগর ব্যুরো।।: শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী ও গোদাড়ার বিভিন্ন মস্য ঘেরে রাতের আধারে মাছ চুরি করে আসছিল দুই চোর। তবে গতকাল বুধবার  মধ্যরাতে গোদাড়ার বড় ঘেরে মাছ চুরির সময় হাতে নাতে পেশাদার দুই জন চোর আটক হয়েছে।
শ্যামনগর থানা সুত্রে জানাগেছে কাশিমাড়ীর গোদাড়া গ্রামের আবুল কাশেম গাজী ছেলে সায়েদ আলি (৩৭) ও জলিল মোল্যার ছেলে ইউনুস আলী মোল্যা (৩৩) কে মাছ চুরি করার সময় ঐ ঘেরের দুই কর্মচারী
গোলাম মোস্তফা ও শফিকুল ইসলাম তাদের কে আটক করে। এবং তাকে কাশিমাড়ী ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আটক রাখা হয়। এসময় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম আব্দুর রউফ দুই চোর কে শ্যামনগর থানা পুলিশ কাছে সোপার্দ করে।
এদিকে তাদের স্বিকার উক্তি মোতাবেক কাশিমাড়ী চোর সিন্ডিকেটের বাড়ী থেকে কাশিমাড়ী ইউপির মেম্বর লাকী একাধিক দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে।এবং পরে তা শ্যামনগর থানায় জমা দেয়া হয়েছে।এঘটনায় থানায় মামলার প্রস্ততি চলছিল।
####