শ্যামনগর সাব-রেজিষ্টার অফিসে অনিয়ম দুর্নীতি : সাধারন মানুষ জিম্মি


696 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগর সাব-রেজিষ্টার অফিসে অনিয়ম দুর্নীতি : সাধারন মানুষ জিম্মি
মে ২৩, ২০১৭ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::
শ্যামনগর সাব-রেজিষ্টার আবু হানিফ এর স্বেচ্ছাচারিতার কারনে সারা দিন অপেক্ষার পর  গত রোববার ফিরে গেল অনেকেই। সকাল ১০ টায় অফিসে আসার কথা থাকলেও সাব- রেজিষ্টার আবু হানিফ দুপুরের পরে তিনি অফিসে এসেছেন।বিকাল গড়িয়ে সন্ধার পর জমি রেজিষ্ট্রী না করে ফিরে গেছে এ জনপদের দুর গ্রাম  থেকে আসা অনেক সাধারন মানুষ।সাতক্ষীরা জেলা রেজিষ্টার মুন্সি রহুল হকের পরামর্শে শ্যামনগর সাব- রেজিষ্টারের মাধ্যমে এ উপজেলার দলিল লেখকগন নিজেদের মধ্যে সমিতি তৈরী করে অবৈধ ভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা।শ্যামনগর দলিল লেখক সমিতির কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে উপজেলার সাড়ে চার লক্ষ মানুষ। সমিতির মাধ্যমে ছাড়া কোন জমি রেজিষ্ট্রী করা যায়না এখারে। সরকারী কোন নিয়ম না থাকলেও সমিতি সাধারন মানুষকে জিম্মি করে বিভিন্ন সময়ে ১৫%,১৪%ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে ১৩% টাকা নিয়ে থাকে। এটাকার যথ সামান্য সরকারী কোষাগারে গেলেও সম্মুদ্বয় টাকা চলে যায় সমিতির সদস্যদের পকেটে।তবে নাম প্রকাশ্যে অনাচ্ছুক দলিল লেখক সমিতির এক সদস্য বলেন,আমরা মানুষের কৌশল করে টাকা নিয়ে থাকি সত্য কিন্ত এ টাকা জেলা রেজিষ্টার মুন্সি রুহুল হক, উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সাব- রেজিষ্টার আবু হানিফ কে সমান ভাগে ভাগ করে দিতে হয়। জেলা রেজিষ্টারের নির্দেশে এব সাব- রেজিষ্টারের সহযোগিতায়  আমরা সমিতির মাধ্যমে এ % নিয়ে থাকি। সরকারী কোন নির্দেশনা না থাকলেও আমাদের কর্তৃৃপক্ষ বিষয়টি জানেন। অন্য একটি অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, শ্যামনগর দলিল লেখক সমিতির কয়েকজন প্রভাব শালী নেতার মাধ্যমে জেলা রেজিষ্টার ও উপজেলা রেজিষ্টার এর সহযোগিতায় জাল মিউটেশনের মাধ্যমে জমি রেজিষ্ট্রী করা হয়ে থাকে।এছাড়া মোটা টাকার চুক্তিতে শ্যামনগর থেকে সাতক্ষীরায় জেলা রেজিষ্টারের কার্য্যালয়ে বড়বড় ঘাবলা সংক্রান্ত রেজিষ্ট্রী করা হয়। দীর্ঘ দিন শ্যামনগরের সাধারন মানুষ এ অনিয়ম দুর্নীতির কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। সমিতির বিরুদ্ধে কথা বলার মত কোন জায়গা নেই। কারন সমিতি নিয়মিত জেলা রেজিষ্টার, উপজেলা রেজিষ্টার সহ বিভিন্ন দপ্তরে টাকা দিয়ে থাকেন। জেলা রেজিষ্টার মুন্সি রুহুল হকের নেতৃত্বে জেলার সকল উপজেলায় কমবেশী এ ধরনের কর্মকান্ড চলছে। শ্যামনগর দলিল লেখক সমিতির ও সাব- রেজিষ্টারেরর দুর্নীতির লাগাম না টানা গেলে সাধারন মানুষ প্রতিনিয়ত ক্ষতিগ্রস্থ হতে থাকবে। তবে এ উপজেলার সচেতন মহলকে জোট বদ্ধ হয়ে এর প্রতিকার করতে হবে। ###