শ্রেষ্ঠ মৎস্য চাষীর সম্মাননা পেলেন নলতার আনারুল !


757 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্রেষ্ঠ মৎস্য চাষীর সম্মাননা পেলেন নলতার আনারুল !
জুলাই ২৪, ২০১৭ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সোহরাব হোসেন সবুজ, নলতা ::
দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৭। সোমবার বেলা ১১টায় একইভাবে এ কর্মসূচীর আয়োজন করা হয় দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হলরুমে। অনুষ্ঠানে মৎস্য চাষের সফলতার স্বীকৃতি স্বরূপ সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে শ্রেষ্ঠ সম্মাননা ক্রেস্ট। মৎস্য চাষে সফলতার সেই ‘শ্রেষ্ঠ সম্মাননা’ অর্জন করেছেন নলতার সু-পরিচিত মৎস্য ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক আলহাজ্ব মোঃ আনারুল ইসলাম। তিনি দেবহাটার মাটিকোমরা গ্রামের বাসিন্দা।
জানা যায়, আলহাজ্ব মোঃ আনারুল ইসলাম ১৯৯০ সাল থেকে প্রায় ২৭ বছর ধরে মৎস্য চাষ ও ব্যবসা করে আসছেন। যার মধ্যে বাগদা, গলদা ও সাদামাছ সহ বিভিন্ন মৎস্য উৎপাদন উল্লেখযোগ্য। তিনি উপজেলা ও জেলা পর্যায়ের মৎস্য কর্মকর্তাদের পরামর্শ অনুযায়ী আধুনিক পদ্ধতিতেও মৎস্য চাষ করেন। যেখানে অন্যান্য মৎস্য চাষীরা হেক্টর প্রতি ৩’শ থেকে ৪’শ কেজি মৎস্য উৎপাদন করছেন। সেখানে আনারুল ইসলাম আধুনিক পদ্ধতিতে প্রতি হেক্টরে ৫ হাজার কেজি মৎস্য উৎপাদন করে চলেছেন। বর্তমানে তিনি আধুনিক পদ্ধতির জন্য প্রায় ৫৫টি বাগদা চিংড়ী চাষের পুকুর তৈরি করেছেন। ৫ বিঘা জমি দ্বারা এক একটি পুকুর, যার প্রতিটি পুকুর তৈরি করতে প্রায় ১৫ লক্ষ থেকে ১৭ লক্ষ টাকা করে ব্যয় হয়। এছাড়া তিনি প্রায় ৬’শত ৫০ বিঘা জমির ঘেরে মৎস্য চাষ করেন। যেখানে হাজার হাজার টন মৎস্য চিংড়ী উৎপাদন করে আসছেন শ্রেষ্ঠ চাষী আনারুল ইসলাম। দেশের সাদা সোনা খ্যাত এই উৎপাদিত চিংড়ী রপ্তানি করে সরকারের প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জিত হয়। শ্রেষ্ঠ এই মৎস্য চাষী তাঁর উৎপাদিত চিংড়ী সারা বাংলাদেশে সরবরাহ করেন বলেও জানা যায়। মৎস্য ক্রয় বিক্রয়ের জন্য দেশের বিভিন্ন স্থানে অফিসের পাশাপাশি তাঁর প্রধান কার্যালয় রয়েছে কালিগঞ্জ উপজেলার নলতায়। দেশের প্রধান অর্থ অর্জনকারী ফসল এই চিংড়ী চাষকে আরো উন্নত ও সমৃদ্ধি করতে সরকারি সহযোগিতা আশু প্রয়োজন বলে মনে করেন চাষী ও ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট সকলেই। ব্যক্তিগত উদ্যোগের পাশাপাশি মৎস্য চাষে প্রত্যক্ষভাবে সরকারি সহযোগিতা থাকলে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের লক্ষ্য মাত্রা প্রবৃদ্ধি হবে।
উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের আয়োজনে কৃষি কর্মকর্তা জসীম উদ্দীনের সভাপতিত্বে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা ভাইজ চেয়ারম্যান মাহবুব আলম খোকন শ্রেষ্ঠ মৎস্য চাষী মোঃ আনারুল ইসলামের হাতে এ সম্মাননা তুলে দেন। অনুষ্ঠানে মৎস্য চাষের উপর গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা বদরুজ্জামান, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা কৃষ্ণপদ বিশ্বাস, উপজেলা প্রকৌশলী, পুরষ্কার প্রাপ্ত মৎস্য চাষী আনারুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুল ওহাব প্রমূখ। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নলতা আহছানিয়া দরবেশ আলী ক্যাডেট স্কুলের পরিচালক ও সাংবাদিক সোহরাব হোসেন সবুজসহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী, বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা মৎস্য চাষী, ব্যবসায়ী ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন।