সন্তানদের উদ্ধারে পদ্মায় ঝাঁপিয়ে এক মায়ের মৃত্যু,আরেকজন নিখোঁজ


90 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সন্তানদের উদ্ধারে পদ্মায় ঝাঁপিয়ে এক মায়ের মৃত্যু,আরেকজন নিখোঁজ
মে ৩১, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট এলাকায় নদীতে গোসল করতে গিয়ে দুই শিশু নিখোঁজ হওয়ার পর তাদের খুঁজতে গিয়ে এক গৃহবধূ পানিতে ডুবে প্রাণ হারিয়েছেন। এ সময় নিখোঁজ হয়েছেন আরেকজন।

নিহতের নাম স্বপ্না বেগম (৩২)। তিনি উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া নতুন পাড়ার চাদু মন্ডলের স্ত্রী। নিখোঁজ হয়েছেন একই এলাকার সুজাত শেখের স্ত্রী রেবেকা খাতুন (২২)।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার বিকালে দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট এলাকায় স্থানীয় কয়েকজন শিশু নদীতে গোসল করার সময় হঠাৎ নিরব ও লামিয়া নামে দুইজনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এ অবস্থায় শিশু নিরবের মা রেবেকা খাতুন নদীতে ঝাঁপ দিয়ে শিশু দুটিকে উদ্ধার করে স্বপ্না বেগমের কাছে দেন। কিন্তু রেবেকা ক্লান্ত হয়ে হয়ে পড়ায় নদীর পানি থেকে আর উঠতে পরেননি। তিনি স্রোতের টানে ভেসে যান। এ সময় রেবেকা খাতুনকে উদ্ধারের জন্য স্বপ্না বেগম নদীতে ঝাপ দিলে তিনিও ডুবে যান। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহতাবস্থায় স্বপ্নাকে উদ্ধার করতে পারলেও রেবেকার কোন সন্ধান পায়নি। উদ্ধারের পর স্বপ্নাকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সাব লিডার দেলওয়ার হোসেন বলেন, নদীতে ডুবে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। এ সময় নিখোঁজ হওয়া রেবেকা খাতুনকে উদ্ধারে গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। রাত পৌনে ৯টা পর্যন্ত রেবেকার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও বলেন, খারাপ আবহাওয়ার কারণে কিছুক্ষণের মধ্যেই আজেকের উদ্ধার কাজ সমাপ্ত ঘোষণা করা হবে। এ সময়ের মধ্যে তাকে না পাওয়া গেলে শনিবার সকালে আবারও উদ্ধার তৎপরতা শুরু হবে।