সরকারি সব হাসপাতালে আইসিইউ সেবা চালুর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর


114 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সরকারি সব হাসপাতালে আইসিইউ সেবা চালুর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
মার্চ ১২, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

নির্দিষ্ট দায়-দায়িত্ব শেষ করে সরকারি হাসপাতালে বসে ফির বিনিময়ে রোগী দেখার সুযোগ পাবেন সরকারি চিকিৎসকরা। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের হাসপাতালমুখী রাখতে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকদের জন্য এ সুযোগ ইতিমধ্যে চালু হয়েছে। এখন এ সুযোগ রাখা হবে দেশের সব সরকারি হাসপাতালে।

এ লক্ষ্যে সরকারি হাসপাতালে বিশেষ কর্নারের ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার পরিকল্পনা কমিশনে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে ৩৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে সরকারি কর্মচারী হাসপাতালকে ৫০০ শয্যায় উন্নীতকরণ প্রকল্প অনুমোদনের সময় তিনি এ নির্দেশনা দেন। বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান একনেকে অনুমোদন পাওয়া প্রকল্প এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো সাংবাদিকদের অবহিত করেন।

এদিকে সব সরকারি হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) চালু করারও নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ রয়েছে। বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউ ব্যবহারে অনেক বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয়। সরকারি হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ চালু করা হলে কম খরচে আইসিইউর সেবা পাবে সাধারণ মানুষ। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী দেশের সর্বাধুনিক চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে উপজেলা ও জেলা হাসপাতালের মানোন্নয়নেরও তাগিদ দিয়েছেন।

এম এ মান্নান জানান, ক্যান্সার, কিডনি, পক্ষাঘাত, হার্ট, বক্ষব্যাধি চিকিৎসাসুবিধা চালু করতে প্রধানমন্ত্রী সরকারি হাসপাতালে আলাদা ওয়ার্ড চালু করতে বলেছেন। হাসপাতালে খোলামেলা পরিবেশ ও ফুলের বাগানের ওপর গুরুত্ব আরোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চিকিৎসক ও রোগীদের বাচ্চাদের জন্য ডে কেয়ারের ব্যবস্থা ও ফুড কোর্ট (খাবারের ক্যান্টিন) থাকতে হবে। প্রয়োজনে সিঙ্গাপুর বা ব্যাংককের হাসপাতালগুলো থেকে অভিজ্ঞতা নিতে হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, মোট দুই হাজার ৬৫১ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদন পাওয়া প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে বরিশাল, ভোলা হয়ে লক্ষ্মীপুর পর্যন্ত সড়কের মানোন্নয়ন, শরীয়তপুর থেকে ইব্রাহীমপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন, নীলফামারী থেকে ডোমার ও বোদা-দেবীগঞ্জ সড়কের উন্নয়ন, ফুলবাড়ী থেকে পার্বতীপুর সড়ক উন্নয়ন, জামালপুরে শেখ হাসিনা নকশিপল্লী এবং লেবু জাতীয় ফসলের সম্প্রসারণ প্রকল্প।