সাংবাদিক প্রবীর শিকদার কারাগারে


509 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাংবাদিক প্রবীর শিকদার কারাগারে
আগস্ট ১৭, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভেয়স অব সাতক্ষীরা ডটকম :
সাংবাদিক প্রবীর শিকদারকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার পুলিশ প্রবীর শিকদারকে জেলার মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চায়। বিচারিক হাকিম মো. হামিদুল ইসলাম তাঁকে হাজতে পাঠিয়ে দেন। তবে রিমান্ডের শুনানি কবে হবে তা জানা যায়নি।
দৈনিক বাংলা ৭১, উত্তরাধিকার-৭১ নিউজ অনলাইন পত্রিকা ও উত্তরাধিকার নামের এক ত্রৈমাসিক পত্রিকার সম্পাদক প্রবীর শিকদারের নামে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় আইসিটি আইনে একটি মামলা হয়েছে। গত রোববার রাতে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন জেলা পূজা উদযাপন কমিটির উপদেষ্টা স্বপন পাল। স্বপন পাল জেলা জজ কোর্টের এপিপির দায়িত্বে রয়েছেন। প্রবীর শিকদারকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করে সোমবার ভোররাতে ফরিদপুরে নেওয়া হয়।
মামলার বাদী তাঁর আরজিতে বলেন, প্রবীর শিকদার তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে গত ১০ আগস্ট বেলা ১১টা ১৫ মিনিটে ‘আমার জীবন শঙ্কা তথা মৃত্যুর জন্য যারা দায়ী থাকবেন’ শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তার নিচে তিনি (প্রবীর শিকদার) তাঁর মৃত্যুর জন্য দায়ী থাকবেন বলে তিনজনের নাম লিখেছেন। যার মধ্যে এক নম্বরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের নাম লিখেছেন।

লিখিত এজাহারে বাদী আরও অভিযোগ করেন, এই পোস্টটি পড়ে মনে হয়েছে প্রবীর শিকদার ইচ্ছাকৃতভাবে ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন সম্পর্কে মিথ্যা ও অসত্য লেখা লিখে মন্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন। উক্ত লেখাটি জনসমক্ষে প্রকাশের মাধ্যমে উসকানি প্রদান করে মানুষের কাছে মন্ত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য বিদ্বেষ ছড়িয়েছেন। এর ফলে মন্ত্রীর মানহানি ঘটেছে। যা একটি ফৌজদারি অপরাধ।

প্রবীর শিকদারকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এজেডএম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘তথ্য প্রযুক্তি আইনে সুনির্দিষ্ট মামলার প্রেক্ষিতে প্রবীর শিকদারকে ঢাকা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। আমরা সোমবার সকালে প্রবীর শিকদারকে বুঝে নেই।’
ফরিদপুর কোতোয়ালি থানা সূত্রে জানা গেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারায় প্রবীর শিকদারকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।
আদালত পরিদর্শক এনায়েত হোসেন বলেন, আদালত সাংবাদিক প্রবীর শিকদারকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে রিমান্ডের শুনানি কবে হবে তা জানা যায়নি।