সাতক্ষীরাকে কেউ আর অশান্ত করতে পারবে না : পুলিশ সুপার


366 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরাকে কেউ আর অশান্ত করতে পারবে না : পুলিশ সুপার
নভেম্বর ২৭, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক:
সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবীর, পিপিএম (বার) বলেছেন, কয়েকজন হায়ানা সাতক্ষীরাকে অশান্ত করার চেষ্টা করেছিলো। কিন্তু সাতক্ষীরার জনগণ হায়ানাদের মোকাবেলা করেছে। এখন আর কেউ শান্তির শহর সাতক্ষীরাকে অশান্ত করতে পারবে না।

পুলিশ সুপার নিজেকে সাতক্ষীরার মানুষ দাবী করে বলেন, আমি সাতক্ষীরায় এসে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রণয়নের জন্য কাগজ প্রস্তুত করে জমা দিয়েছি। আমি এ জেলার নাগরিক হতে যাচ্ছি। শুক্রবার কারিমা স্কুল মাঠে প্রথম শেখ রাসেল স্মৃতি ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলায় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
৫ নং ওয়ার্ড যুব কমিটি আয়োজিত টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলায় বাপ্পা যুব সংঘকে হারিয়ে মুনজিতপুর ১২ সংঘ চ্যাম্পিয়ান হয়। তীব্র উত্তেজনা পূর্ণ খেলায় নির্ধারিত ১০ ওভারে প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১১২ রান করে। ১১৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ১০ ওভারে ৫ উইকেটে ১১১ করে।

খেলার পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কারিমা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. শফিকুল ইসলাম।
বক্তব্য রাখেন ক্রিকেট প্রশিক্ষক শেখ আকবর আলী, রবিউল ইসলাম মুকুল প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহিনুর রহমান শাহিন, আব্দুল গফুর, আব্দল হাকিম, আব্দুল কালাম প্রমুখ।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি পুলিশ সুপার আরো বলেন, দেশের ক্রীড়াঙ্গনে সাতক্ষীরা প্রতিষ্ঠিত নাম। দেশের ক্রিকেটের ৫ জন ক্রিকেটারের নাম লিখতে বললে যে কেউ সৌম্য ও মোস্তাফিজের নাম লিখবে। তিনি আরো বলেন, জেলার সাবিনা এমন এক রেকর্ডের অধিকারী যা ফুটবল বিশ্বে আর কেউ কখনও করেনি। সাবিনা মালদ্বীপ পুলিশের পক্ষে এখ খেলায় ১৬ গোল করেন। যা ফুটবলের ইতিহাসে এখনও পর্যন্ত কেউ করেনি। তিনি আরো বলেন, যুবকরা খেলাধুলায় থাকলে তারা বিপথে যাবে না। ফলে তাদের খেলাধুলো ও চিত্ত বিনোদনের সুযোগ করে দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, মাদক থেকে যুব সমাজকে দূরে থাকতে হবে। যুব সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। এ জন্য সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। পরে প্রধান অতিথি খেলায় চ্যাম্পিয়ান ও রানারআপ দলকে পুরস্কার প্রদান করেন।