সাতক্ষীরার আব্দুর রহমান কলেজে নানা অনিয়মের অভিযোগ


414 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার আব্দুর রহমান কলেজে নানা অনিয়মের অভিযোগ
জানুয়ারি ১১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

বিশেষ প্রতিনিধি:
এ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান কলেজে এইচএসসি ফরম পূরণে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, ঠিকমত ক্লাস না হওয়া, অধ্যক্ষের ঠিকমত কলেজ না করাসহ নানাবিধ অভিযোগ উঠেছে। অতিরিক্ত অর্থ নেওয়া কয়েকজনকে ফেরতও দিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। ভুক্তভোগীরা জানান, কলেজ অধ্যক্ষ আক্তারুজ্জামানের নির্দেশে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হয়। আবার প্রভাবশালীদের চাপে কয়েকজনকে অর্থ ফেরতও দিয়েছে তার নির্দেশে। তবে ভুক্তভোগীরা এ বিষয়ে কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতিসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।
সূত্র জানায়, শহরতলীর বিনেরপেতায় এ্যাডভোকেট ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ঠিকমত চললেও বর্তমান অধ্যক্ষ আক্তারুজ্জামান যোগদানের পর থেকে নানান অনিয়ম তৈরি হয়। সম্প্রতি শেষ হওয়া এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত ৭ শ টাকা করে আদায় করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা তাদের অবিভাবকদের জানালে প্রভাবশালীদের চাপে ১২-১৩ জনকে ৬৫০ টাকা করে ফেরত প্রদান করে। এঘটনায় কলেজে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়। রবিবার কলেজে গেলে কয়েকজন শিক্ষার্থী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, কলেজে তাদের ঠিকমত ক্লাস হচ্ছে না। ক্লাস না হওয়ায় কলেজ দিন দিন প্রাণ চাঞ্চল্য হারাচ্ছে। ফলে কলেজের ঐতিহ্য দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীরা আরো জানান, বছরের প্রথমে একাদশ শ্রেণির ক্লাস ও নবীব বরণ প্রত্যেক কলেজে হলেও আমাদের কলেজে তা হচ্ছে না। ফলে আমরা সংস্কৃতি ও সৃষ্টিশীলতা থেকে পিছিয়ে পড়ছি। এ বিষয়ে কলেজের উপাধ্যক্ষের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে কলেজের অফিস সহায়ক জানান. উপাধ্যক্ষ মিটিং করছে। তিনি এখন কথা বলতে পারবেন না। অধ্যক্ষ আক্তারুজ্জামান কয়েকদিন কলেজে আসছে না। তিনি ছুটি নিয়েছেন কিনা তাও জানাতে পারে নি কলেজের কোন কর্মকর্তা ও শিক্ষক। এ অবস্থায় কলেজের অচলবস্থা নিরসনে পরিচালনা পরিষদের সভাপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে ভুক্তভোগীরা।