সাতক্ষীরার আলিপুরে ভোট কেন্দ্র স্থগিতের ঘটনায় লিখিত নিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি


388 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার আলিপুরে ভোট কেন্দ্র স্থগিতের ঘটনায় লিখিত নিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি
এপ্রিল ২, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
ইউপি নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র বন্ধের ঘটনায় খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ইউনিয়নবাসীর কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ গ্রহণ করেছেন। শনিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর থানায় খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি একরামুল হাবিব বিভিন্ন ব্যক্তি ও পুলিশের লিখিত অভিযোগ গ্রহণ করেন। এর আগে ২৮ মার্চ তিনি ইউনিয়নের ওই স্থাগিতকৃত কেন্দ্র এলাকা পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি ইউনিয়নবাসীকে লিখিত মতামত প্রদানের নিদের্শ দেন। সে মোতাবেক শনিবার এই মতামতের দিন নির্ধারণ করা হয়।
সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আলিপুর ইউনিয়নের নির্বাচনে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক ব্যালট পেপারে সীল মেরে বাক্স বন্দিসহ ত্রাস সৃষ্টির ঘটনায় ৪টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থাগিত করে নির্বাচন কমিশন। এ পরিপ্রেক্ষিতে ৪টি কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বাদী হয়ে ঘটনার মূল নায়ক আলীপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ মহিয়ূর রহমান ওরফে ময়ূর ডাক্তারসহ দুষ্কৃৃতিকারীদের আসামী করে সদর থানায় পৃথক ৪টি মামলা করে।
এদিকে সদর উপজেলার ৭ নং আলীপুর ইউনিয়নের ৪টি ভোট কেন্দ্র স্থগিত হওয়ার ঘটনায় পৃথক ৪ টি মামলার প্রধান আসামী আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ময়ুর ঢালী এখনও এলাকায় স্বগৌরবে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ ৪ মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করছে না। এরই সাথে গ্রেফতার এড়িয়ে আছে অপর অসামীরা।
সূত্র আরো জানায়, সাতক্ষীরা সদর উপজেলাধীন আলীপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের গাংনিয়া সিনিয়র মাদ্রাসায় ভোট ডাকাতির ঘটনায় উক্ত ভোট কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ রাশিদুর রহমান বাদী হয়ে স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন বিধিমালা ২০১০ এর বিধি৭৭(১) তৎসহ ১৯০৮ সালের বিষ্ফোরক উপাদানাবলীর আইনের ৩/৬ ধারা অবৈধভাবে সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের জিম্মি করে ভোট কেন্দ্র দখল করত নির্বাচনী সরকারি সারঞ্জাম ব্যাবহার ও বিষ্ফোরন ঘটানোসহ বিভিন্ন ধারায় একটি মামলা করেন । উক্ত মামলায় প্রধান আসামী করা হয়েছে আলীপুর ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়া এলাকার মৃত কাদের বক্স সরদারের ছেলে নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোহাম্মাদ মহিয়ূর রহমান ময়ূর ডাক্তার, মাহমুদপুর গাংনিয়া এলাকার মোছাঃ ফরিদা খাতুন, মোঃ আব্দুস সালাম ঢালীসহ অজ্ঞাতনামা ১৫/২০ আসামী।
ভাড়–খালী সরকারি প্রাইমারী স্কুল ভোট কেন্দ্রে ভোট ডাকাতির ঘটনায় উক্ত কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বাদি হয়ে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী মহিয়ুর রহমান, ফরিদা খাতুন, আসিফ হোসেন, মফিজুল ইসলামসহ ১৫/২০ কে অজ্ঞাত আসামী করে একটি মামলা করে। আলীপুর সরকারি প্রাইমারি স্কুল ভোট কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার নাজিম উদ্দীন বাদি হয়ে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী মহিয়ুর রহমান, মনোয়ারা খাতুন, রমজান আলীসহ অজ্ঞাতনামা ১৫/২০জন কে করে একটি মামলা দায়ের করে। মাহমুদপুর পূর্ব সরকারি প্রাইমারি স্কুল ভোট কেন্দ্রের ভোট কারচুপির ঘটনায় উক্ত কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. মাহবুবুর রহমান বাদি হয়ে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী মহিয়ুর রহমান, ফরিদা খাতুন, জাহিদুর রহমানসহ ১৫/২০ জনকে অজ্ঞাত করে একটি মামলা করে। । এব্যাপারে সদর থানার ওসি(তদন্ত) আবুল হাশেম বলেন, তিনি শুধু আলিপুর ইউনিয়ন না জেলায় স্থগিত হওয়া বিভিন্ন ইউনিয়নের বিষয়ে খোজ খবর নিতে এসেছিলেন।