সাতক্ষীরার আশাশুনিতে নির্বাচন পরবর্তী জয়-পরাজয়কে কেন্দ্র করে একটি মহল বিশৃংখলা সৃষ্টি করছেন


320 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার আশাশুনিতে নির্বাচন পরবর্তী জয়-পরাজয়কে কেন্দ্র করে একটি মহল বিশৃংখলা সৃষ্টি করছেন
মার্চ ২৬, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ঃ সাতক্ষীরার আশাশুনিতে নির্বাচন পরবর্তী জয়-পরাজয়কে কেন্দ্র করে একটি মহল বিশৃংখলা সৃষ্টি করছেন বলে অভিযোগ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। শনিবার সকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।
তিনি নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার প্রতিবাদ জানিয়ে তাদেরকে শান্তি পূর্ন সহ-অবস্থানে ফিরিয়ে আসার আহবান জানান এবং এ ব্যাপারে পুলিশের সহায়তা কামনা করেন।
তিনি বলেন, সহিংসতা প্রতিরোধে তিনি সচেতন রয়েছেন। নতুন কোন ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।
উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সেক্রেটারি শহিদুল ইসলাম পিন্টু নির্বাচনে হেরে গিয়ে তাকে(উপজেলা চেয়ারম্যানকে) রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য তার নাম জড়িয়ে এবং হিন্দু মুসলিম সম্প্রীতির বন্ধনকে বিনষ্ট করার জন্য গত শুক্রবার তিনি কিছু লোকজন নিয়ে মিথ্যা মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

তিনি বলেন, তার ( উপজেলা চেয়ারম্যানের ) বিরুদ্ধাচরন করে কার্যতঃ তিনি দলের সাংগঠনিক ভাবমুর্তি বিনষ্ট করেছেন এবং পত্র পত্রিকায় এসব বিষয়ে তাকে নিয়ে যা যা বলা হয়েছে তা আদৌ সত্য নয়। তিনি বলেন, সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্যরা তার (উপজেলা চেয়ারম্যানের) প্রতিবেশি স্বজন এবং সামাজিক ও রাজনৈতিক বন্ধু। তারা পরস্পরের সুখ দুঃখের সাথে জড়িত। তাদের সাথে তার কোন দূরত্ব নেই। ২০১৩ সালের সহিংসতার সময় তিনি তাদেরকে

সর্বাত্মক নিরাপত্তা ও সহযোগিতা দিয়ে নৈতিক দায়িত্বও পালন করেছেন। তাদের সাথে তার কোনো প্রকার বিরোধ বা শত্রুতা নেই।
তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে পরাজিত প্রার্থী শহিদুল ইসলাম পিন্টুর আপন ভাইপো সুমন তার বাহিনী নিয়ে বলাবাড়িয়া এলাকায় তান্ডব চালায়। সুমন বাহিনীর সদস্য পিন্টু সরকার, শৈলেন, খোকন, শংকর এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে। সুমন ধারালো দা নিয়ে হুমকি দেন নবনির্বাচিত চেয়াম্যানের সমর্থকদের।

এমনকি শহিদুল ইসলাম পিন্টু নিজেও নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মিলনের সমর্থক তুলশিকে বন্দুকের বাট দিয়ে আঘাত করেন। নির্বাচনে জিতে যাবার পর তাদেরকে আরও কঠিনভাবে শায়েস্তা করবেন বলে হুমকি দেন সুমন বাহিনী। তাকে (উপজেলা চেয়ারম্যানকে) চাপে রেখে ফায়দা লুটার লক্ষ্যে তিনি (পিন্টু) তার নামে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলছেন। উপজেলা চেয়ারম্যার অভোযোগ করে আরো বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের মা, বোন ও ভাইদের পুঁজি করে দলের সেক্রেটারি শহিদুল ইসলাম পিন্টুৃ ফায়দা লুটবার চেষ্টা করছেন। তিনি এসময় তার কথা মত মিথ্যা তথ্য সরবরাহ না করার জন্য সাংবাদিকদের কাছে অনুরোধ জানান।

এসময় তার সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন, আশাশুনি সদর ইউপির নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সম সেলিম রেজা মিলন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সহ-সভাপতি সেলিম রেজা সেলিম, উপজেলা মৎসজীবীলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলামসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। এর আগে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে একটি মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। উক্ত মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলনে নারী পুরুষসহ সহস্্রাধিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।##