সাতক্ষীরার আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৪ : বাড়ি-ঘর ভাংচুর


234 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৪ : বাড়ি-ঘর ভাংচুর
মার্চ ২৬, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান ::

পূর্ব শত্রতার জের ধরে সাতক্ষীরার আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের হামলায় চার জন আহত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আহতদের মধ্যে রনজিদা খাতুন নামের এক গৃহবর্ধর অবস্থা আশংকাজনক। এ সময় ভাংচুর করা হয়েছে তিনটি টালির ঘর। সোমবার রাতে উপজেলার শ্বেতপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। তবে, প্রতি পক্ষের দাবী তাদেরও একজন আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন, আশাশুনি উপজেলার শ্বেতপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী রনজিদা খাতুন, একই এলাকার মৃত মোহর আলী বিশ্বাসের ছেলে রউফ বিশ্বাস, আব্দুল্লা হেল কাফির স্ত্রী সাবিনা খাতুন ও আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাসের ছেলে ডালিম বিশ্বাস।

প্রতি পক্ষের আহতের নাম খলিল সরদার। তিনি ওই গ্রামের কাছেদ আলী সরদারের ছেলে। আহতরা সবাই সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য লিয়াকত বিশ্বাস জানান, কোন কারন ছাড়াই পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শ্বেতপুর গ্রামের এমদাদুল সানা, মাজহারুল সানা, ওবায়দুল মোড়ল, তায়জুল মোড়ল, খলিল সরদার, রফিকুল ইসলাম, আব্দুস সামাদ, আব্দুল গফুরসহ ১০/১২ জন রাতে প্রথমে আমাদের বাড়ির সামনে একটি বাল্ব ভাংচুর করে। এরপর তারা আমাদের বাড়িতে ঢুকে পর পর তিনটি টালির ঘর ভাংচুর ও জিনিস পত্র তছনছ করে। এতে বাধা দিলে আমার ভাইয়ের স্ত্রী রনজিদা, ভাই রউফ বিশ্বাস, সাবিনা ও ডালিমকে তারা মারপিট করে আহত করে। তিনি আরো জানান, আহতদের মধ্যে রনজিদার অবস্থা আশংকাজনক। আহতদের সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে, প্রতিপক্ষ আহত খলিল সরদারের ভাইপো সাগর হোসেন সবুজ মারপিটের বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, ইউপি সদস্য লিয়াকত বিশ্বাসদের বাড়ির টালির চালে রাতে একটু শব্দ হয়। এতে তারা সন্দেহ জনক ভাবে প্রথমে আমাদের উপর হামলা চালায়। এতে আমার চাচা খলিল সরদার আহত হয়।

তিনি আরো জানান, তারা আমাদেরকে আহত করে উল্টো তারাই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

#