সাতক্ষীরার কলারোয়ায় এক বৃদ্ধা মায়ের আত্মহত্যা


363 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় এক বৃদ্ধা মায়ের আত্মহত্যা
নভেম্বর ৪, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

কে এম আনিছুর রহমান ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় সন্তানরা ভরণপোষন না দেয়ায় ৮০বছরের এক বৃদ্ধা মা আত্মহত্যা করেছে। কেবল তাই নয়, বিষপান করার পর টানা ৩দিন বেঁচে থাকলেও সন্তানদের অমানবিক আচরণে বিনা চিকিৎসায় শেষ পর্যন্ত মারা-ই গেলেন ওই মা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের গণপতিপুর গ্রামে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা এসআই জাহাঙ্গীর জানান- ওই গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনর স্ত্রী ও ৭ সন্তানের জননী সবুরুন নেছা (৮০) গত ৩১অক্টোবর রাতে ঘাস মারা বিষ পান করে। স্বজনরা সেই রাতেই চিকিৎসার জন্য কলারোয়া ও পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় প্রেরণের পরামর্শ দিলে সন্তানরা সেটা না করে তাদের মা’কে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে আসে। এক প্রকার বিনা চিকিৎসায় ৩ নভেম্বর রাতে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন।
সূত্র আরো জানায়- ঠিকমতো ভরনপোষন না পেয়ে সন্তানদের উপর রাগে-অভিমানে ঘরে থাকার ঘাস মারা বিষ পান করে সবুরুন নেছা। তখন সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেয়া হলেও চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় নেয়ার পরামর্শ দিলেও মায়ের বয়স বেশি হওয়ায় খুলনায় নিয়ে গেলে অনেক টাকা খরচ হবে বলে তার সন্তানেরা খুলনায় না নিয়ে বরং বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। ৩দিনের বেশি সময় ধরে একপ্রকার বিনা চিকিৎসায় শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাড়িতেই মারা যান তিনি। খবর পেয়ে রোববার থানার এসআই জাহাঙ্গীর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশের সুরতহাল করেন। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যুর মামলা (নং-৩৫/১৮ইং) হয়েছে। এদিকে, বৃদ্ধা মা ৭ সন্তান জন্ম দেয়ার পরেও তাদের অবহেলা আর অমানবিক আচরণে মায়ের এমন আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়ায় এলাকায় ধিক্কারের ঝড় উঠেছে।