সাতক্ষীরার তালা ও আশাশুনি ঘুরে গেলেন ক্রিকেটার মাশরাফি-সৌম্য-সালমা-জাহানারা


3620 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার তালা ও আশাশুনি ঘুরে গেলেন ক্রিকেটার মাশরাফি-সৌম্য-সালমা-জাহানারা
জানুয়ারি ৮, ২০১৬ আশাশুনি খেলা তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

তালা ও আশাশুনি প্রতিনিধি :
সব সময় খেলা করলে কী হবে? মানুষের জন্যও কাজ করতে হবে। আপনাদের কথা শুনে আমরা চলে এসেছি। আপনাদের পাশে পেয়ে খুব ভাল লাগছে। আর সবসময় পাশেই থাকতে চাই। খেলার পাশাপাশি কাজও করতে চাই আপনাদের সঙ্গে। এ ভাবে কথাগুলো বলছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মারশাফি বিন মর্তুজা ও ওপেনার সৌম্য সরকার। তাদের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন ও জাহানারা আলম।
শুক্রবার (০৮ জানুয়ারি) বেলা ১২টার দিকে সাতীরার তা12540709_752690134864384_1865872671756624982_nলা উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামের বিবিসি মিডিয়া একশনের আয়োজনে ‘আমরাই পারি’ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে তারা এসব কথা বলেন। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তারা একটি সি-প্লেনে চড়ে আশাশুনি উপজেলার খোলপেটুয়া নদীর মানিকখালী অবতরণ করেন। সেখান থেকে সড়ক পথে আসেন তালা উপজেলায়।
সৌম্যর বাড়ি সাতীরার আশাশুনি উপজেলার মহিষাডাঙ্গা গ্রামে। গ্রামের বাড়ির উপর দিয়ে সৌম্য সরকারসহ সবাই আসেন তালার নারায়ণপুর গ্রামে। পৌঁছান বেলা ১২টা ১৫মিনিটে। নারায়ণপুর গ্রামে সাধারণ মানুষের সঙ্গেই সময় দেন চার ঘণ্টা।
বিবিসি মিডিয়া একশনের আয়োজনে ‘আমরাই পারি’ অনুষ্ঠানের বিভিন্ন শুটিং-এ অংশ নেন। কথা বলেন-সাধারণ মানুষের সঙ্গে। চার ক্রিকেট তারকা তালায় আসার খবরে সাধারণ মানুষ তাদের এক নজর দেখার জন্য আসতে থাকেন নারায়ণপুর গ্রামে। কিন্তু পুলিশ প্রশাসনের কঠোর নিরাপত্তার কারণে অনেকে তাদের দেখতে পারেনি। তবে যারা তাদের দেখেছেন তাদের খুবই উচ্ছ্বসিত হতে দেখা গেছে। ‘আমরাই পারি’ অনুষ্ঠানে এসে পুকুরে হাঁসের খামার, সবজি চাষ, মাছ চাষসহ বিভিন্ন কার্যক্রম দেখেন তারা। এরপরই ৩টা ১৫মিনিটে যান খুলনার উদ্দেশ্যে।
AHC.-08..01.16 (B)
এদিকে, ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমের বুধহাটা প্রতিনিধি জানান,
আশাশুনিতে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ক্যাপ্টেন মাশরাফি বিন মর্তুজা, সৌম্য সরকার ও মহিলা দলের ক্যাপটেন সালমা, জাহানারাসহ বিবিসি’র কর্মকর্তাবৃন্দ আশাশুনি হয়ে তালা উপজেলার বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে উল্লেখিত জাতীয় ক্রিকেটাররা সি-প্লেনে খোলপেটুয়া নদীতে নেমে ফেরি ঘাটে উঠলেই হাজার হাজার মানুষ তাদেরকে একনজর দেখতে জড়ো হয়। ক্যাপটেন মাশরাফি বিন মর্তুজা, ক্রিকেটের আরেক কান্ডারী আশাশুনি গর্ব সৌম্য সরকার, জাতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের (ওয়ানডে) সালমা ও টি-টোয়েন্টি ক্যাপটেন জাহানারা মানিকখালী ফেরিঘাট থেকে সরাসরি উপজেলা সদর থেকে বুধহাটা-কুল্যা হয়ে তালার ঘোনা গ্রামে যান। সেখানে বিবিসি জলাবদ্ধ এলাকার মানুষের জীবন-মান উন্নয়নে পুকুর সংস্কার করে ২৫টি পরিবারকে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার জন্য গৃহীত কার্যক্রম দেখেন।

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

সুফলভোগিদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে দীর্ঘ সময় তাদের কাজের সাথে শেয়ার করেন। বিকাল ৪টায় সালমা ও জাহানারা পুনরায় আশাশুনিতে ফিরে ফেরিঘাটে ক্ষুদ্র দোকানে চা চক্র করেন এবং উৎসুক মানুষের সাথে কুশল বিনিময় পূর্বক এলাকায় জলাবদ্ধতাসহ বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে খোঁজ খবর শেষে আবারও তাদের বহনকারী সি-প্লেনে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। মাশরাফি এবং সৌম্য সরকার খুলনায় উদ্দেশ্যে গমন করেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। তাদের সফর সঙ্গী ছিলেন, বিবিসি কান্ট্রি ডিরেক্টর রিসার্ডসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।