সাতক্ষীরার দেবহাটায় কওমী মাদ্রাসা ছাত্রকে কুপিয়ে জখম: আটক এক


1182 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার দেবহাটায় কওমী মাদ্রাসা ছাত্রকে কুপিয়ে জখম: আটক এক
ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৬ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

দেবহাটা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার দেবহাটায় এক মাদ্রাসা ছাত্রকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করেছে তার সহপাঠি ও সক্রিয় শিবিরকর্মী। আহত মাদ্রাসা ছাত্র সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার সোনারমোড় এলাকার আব্দুল্লাহ আল মাসুদ(১৫)।

সে ইটাগাছা দারুল উলুম কওমি মাদ্রাসার মাওলানা বিভাগের ছাত্র। হামলাকারী একই মাদ্রাসার ছাত্র এবং দেবহাটার চাঁদপুরের শেখ সাইফুল ইসলামের পুত্র আশিকুর রহমান(১৬)। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার ভোরে উপজেলার চাঁদপুর ডেলটা মোড়স্থ পরিত্যক্ত মৎস্য প্রসেসিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

তারা ভোরে সাতক্ষীরা থেকে নলতা ওরছ শরীফ দেখতে যাওয়ার উদ্দেশে রওনা দেয়। প্রতিমধ্যে চাঁদপুর ডেলটা মোড়ে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে নেমে দুই জন ফজরের নামাজ শেষে আশিকের বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে পরিত্যাক্ত এলাকায় নিয়ে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

স্থানীয়রা আহতর আর্তনাদ শুনে এগিয়ে আসলে আশিকুর তাকে ফেলে পালিয়ে যায়। এসময় আহত আব্দুল্লাহ আল মাসুদকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

অবস্থা আশংঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। এদিকে আসামী আশিকুর পালানোর সময় স্থানীয় জনতা তাকে আটক করে। পরে তাকে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল গনির বাসভবনস্থ শাখা আফিসে নিয়ে দেবহাটা থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দেবহাটা থানায় নিয়ে আসে।

অপরদিকে উক্ত কওমি মাদ্রাসা ছাত্র আশিকুর সক্রিয় শিবির সদস্য বলেও জানিয়েছে এলাকাবাসী। তবে তার পিতা শেখ সাইফুল ইসলাম বলেন, কিভাবে সে অস্ত্র ব্যবহার শিখেছে এবং এ ধরনের অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়েছেন তা জানেন না তিনি।