সাতক্ষীরায় যুবক খুনে জড়িত সন্দেহে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিক আটক


951 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় যুবক খুনে জড়িত সন্দেহে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিক আটক
জানুয়ারি ২৩, ২০১৯ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ইব্রাহিম খলিল/আর.কে বাপ্পা ::

সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কেওড়াতলা মৎস্য ঘের থেকে আলী হোসেন (২৬) নামক এক যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্ত্রী আসমা খাতুন ও তার প্রেমিক জাকির হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটক স্ত্রী আসমা খাতুন (২২) দেবহাটা উপজেলার গাজিরহাট এলাকার মেয়ে ও আটক প্রেমিক জাকির হোসেন পারুলিয়া এলাকার বাসিন্দা। বুধবার বিকালে তাদেরকে কৌশল অবলম্বন করে আটক করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

নিহতের চাচাতো ভাই সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় ইউপি সদস্য আকবর আলী জানান, ৭ বছর আগে আলী হোসেনের সঙ্গে আসমা খাতুনের বিয়ে হয়। তাদের চার বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। আলী হোসেন পেশায় একজন দিনমজুর। তার কারো সঙ্গে কোন প্রকার শত্রুতার বিষয়ে আমাদের পরিবারের কারো জানা নেই। যে কারণে তাকে জবাই করে নৃশংসভাবে হত্যা করা হতে পারে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আকবর আলী আরও জানান, ছোট ভাইয়ের স্ত্রী আসমা খাতুন বিভিন্ন ছেলেদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলতো। এটা নিয়ে পরিবারের মধ্যে অশান্তিও ছিলো। শালিশী বৈঠকও হয়েছে। এক সময়ে ব্র্যাকের একজন মাঠকর্মীর সঙ্গে আসমা খাতুনের কথাবর্তা হতো। এটা নিয়েও পরিবারের মধ্যে অশান্তি হয়। এরপর পারুলিয়া এলাকার জাকির হোসেন নামে আরেক ছেলের সঙ্গে ছিলো সম্পর্ক। আমার ভাইয়ের থেকে ভাবির চেহারা একটু বেশী সুন্দর। যার কারণে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্কটাও খুব বেশী ভালো ছিলো না। ভাবির পরকীয়ায় হতে পারে এ হত্যার মূল কারণ। এছাড়া অন্য কোন কারণ থাকতে পারে না।
তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে সখিপুর বাজারে চা খাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয় আলী হোসেন। সেই থেকেই নিখোঁজ। তবে স্বামী নিখোঁজ হলেও তার স্ত্রী আসমা খাতুনের চোঁখে বিন্দুমাত্র শোক দেখা যায়নি। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গলাকাঁটা মরদেহ উদ্ধার হলেও সে ছিলো স্বাভাবিক। সে সব কারণে ধারণা করা যায়, স্ত্রীর পরকীয়াই হতে পারে হত্যার মূল রহস্য।

হত্যাকান্ডের বিষয়ে দেবহাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, কি কারণে হত্যা করা হয়েছে সেটি এখনো নিশ্চিত নয়। তবে তার স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে এমন হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে কিনা সে বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদোর জন্য তার স্ত্রী আসমা খাতুন ও প্রেমিক জাকির হোসেনকে আটক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার চিনেডাঙ্গা কেওড়াতলা এলাকার একটি ঘের থেকে গলাকাটা অবস্থায় দিনমজুর আলী হোসেনের (২৬) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টারর দিকে স্থানীয়দের দেওয়া খবরের পর মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।
নিহত যুবক আলী হোসেন মাঝ সখিপুর গ্রামের মৃত.আহম্মদ আলীর ছেলে ও পেশায় একজন দিনমজুর।

#